গণতন্ত্রহীনতায় বাধাগ্রস্থ বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি

প্রকাশ:| সোমবার, ৬ মার্চ , ২০১৭ সময় ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

গণতন্ত্রহীনতার কারণে বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির কেন্দ্রিয় নেতা ও সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন ও অর্থনীতির স্বার্থে গণতন্ত্রে প্রত্যাবর্তন জরুরি। এটা দীর্ঘায়িত হলে আওয়ামী লীগেরও কোন লাভ হবে না।

রোববার বিকেলে চট্টগ্রাম মুসলিম ইনষ্টিটিউট হলে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। মুক্তিযোদ্ধা এম. আলাউদ্দিন শোকসভা প্রস্তুতি কমিটি এ সভার আয়োজন করে।

নোমান বলেন, দেশের মানুষ স্বস্তিতে নেই। মানুষের ক্রয় ক্ষমতা নেই। গ্যাসসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের মূল্য বৃদ্ধির কারণে ভবিষ্যৎএ মূল্যস্ফীতি আরো চরম আকার ধারন করবে। সরকার নতুন করে বিদ্যুৎ এর মূল্য বৃদ্ধির পায়তারা করছে। সরকারের এসব গণবিরোধী সিদ্ধান্তে দেশের মানুষ প্রত্যক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

‘বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে হবে, অন্যথায় নিবন্ধন বাতিল হবে’ আওয়ামী লীগ নেতারা অপকৌশল করে এধরনের মুখরোচক বক্তব্য দিলেও এসবকে বিএনপির গুরুত্ব দেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি নাম সর্বস্ব দল নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি বাংলাদেশের বৃহৎ রাজনৈতিক দল। এই দলের রয়েছে কোটি কোটি সমর্থক এবং ভোটার। তাই নির্বাচন কমিশন এবং সরকার ইচ্ছ করলেই বিএনপির নিবন্ধন বাতিল করতে পারবে না।

‘নেতৃত্বের মূল্যায়ন যদি মৃত্যুর পর হয় তাহলে রাজনৈতিক নেতা এবং সমাজকর্মী সৃষ্টি কমে যাবে। ব্যক্তির পকেট অথবা তোষামোদির মাধ্যমে নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হলে সে নেতৃত্ব জনগণের কাছে কখনো গ্রহণযোগ্য হবে না।’

শোকসভা প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক উপাধ্যক্ষ আতিকুল ইসলাম লতিফীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে নগর বিএনপির সভাপতি ডাক্তার শাহাদাত হোসেন, বিএনপির কেন্দ্রিয় শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, বিএনপির সহ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক কাদের গনি চৌধুরী, বিএনপি নেতা জাহাংগীর আলম চৌধুরী, এম এ সবুর, অ্যাডভোকেট আব্দুস সাত্তার, ডাক্তার খুরশীদ জামিল চৌধুরী, শেখ নুরুল্লাহ বাহার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


আরোও সংবাদ