গণজাগরণ মঞ্চের প্রয়োজন নেই-মেনন

প্রকাশ:| শনিবার, ২০ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:৪০ অপরাহ্ণ

এখন আর গণজাগরণ মঞ্চের প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেছেন, আগে মঞ্চের আবেদন ছিল। এখন এটি তিনভাগে বিভক্ত। তাই এখন আর এর আবেদন নেই। সন্ধ্যায় বিবিসি সংলাপের প্যানেল আলোচক হিসেবে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে ধারণ করা আলোচনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব:) মাহবুবুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরী অংশ নেন। আকবর হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত এক দর্শকের প্রশ্নের জবাবে রাশেদ খান মেনন বলেন, আমি আগেও বলেছি সাঈদীর বিরুদ্ধে আপীল বিভাগের এই রায়ে জনগণের প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির ফারাক রয়েছে। তবে বিচারকদের রায়ের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। একই বিষয়ে আসিফ নজরুল বলেন আওয়ামী লীগ ও জামাতের মধ্যে আঁতাতের বিষয়ে সন্দহ করা যৌক্তিক এবং তা অমূলক নয়। অতীতে তাদের মধ্যে আাঁতাত হয়েছে এমনটি আমরা জানি। জামাতের সঙ্গে বিএনপির সমঝোতা প্রকাশ্যে আর আওয়ামী লীগের সঙ্গে তা অপ্রকাশ্যে। এবিষয়ে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে সন্দেহ করা সবচেয়ে সহজ। একজন প্যানেল আলোচকের একটি মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, অতীতে যুদ্ধাপরাধ ইস্যু সামনে এনেছে দেশের নাগরিক সমাজ। আর আওয়ামী লীগ ছিল এর সহায়ক শক্তি। এবিষয়ে মাহবুবুর রহমান বলেন, সাঈদীর রায়ের পর বিএনপি প্রতিক্রিয়া দেখায়নি কথাটি ঠিক নয়। আমি নিজেই রায়ের পর গণমাধ্যমে কথা বলেছি। তিনি বলেন, মানবতাবিরোধী অপরাধের চেয়ে ঘৃন্য আর কিছু হতে পারে না। তবে সাঈদীর বিরুদ্ধে দেয়া আপীলের রায়কে আমরা শ্রদ্ধা করি। একাত্তরে শহীদ ডা. আলীম চৌধুরীর কন্যা ডা. নুজহাত চৌধুরী বলেন, আমরা যতই সংক্ষুদ্ধ হইনা কেন সাঈদীর রায়ের ক্ষেত্রে আঁতাতের রায় হয়েছে এটি আমি বলতে পারি না। কেননা দেশের সর্বোচ্চ আদালত রায় দিয়েছে এবং এটি শিরোধার্য।