খেললো রোবট

প্রকাশ:| সোমবার, ৩০ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ১০:১৬ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সমাজবিজ্ঞানী ও শিক্ষায় একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেছেন, ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্রমশ উৎকর্ষ সাধন হচ্ছে। একসময় বিজ্ঞানের কল্যাণে নানা যন্ত্রপাতির আবিষ্কারে চাকরি হারানোর ভয় পেয়ে ইংল্যান্ডের শ্রমিকরা সেসব ভাঙতে শুরু করেছিল।পরে দেখা যায়, যন্ত্রপাতির আবিষ্কারের কারণে শ্রমিকদের চাকরি হারানোর কোন কারণ ঘটেনি, বরং নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে রোবট আবিষ্কার এবং নানা কাজে রোবট ব্যবহৃত হওয়ার কারণেও জাপান প্রভৃতি দেশে লোকজন চাকরি হারানোর ভয় করছে। আসলে এই ভয় অমূলক। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উৎকর্ষের সাথে সাথে তৃতীয় বিশ্ব ও তার সন্তানেরাও নির্বিঘ্নে এগিয়ে যাবে।’

সোমবার (৩০ অক্টোবর) নগরীর প্রবর্তক মোড়ের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় অডিটোরিয়ামে তিন দিনব্যাপি বাংলাদেশের প্রথম থ্রি অন থ্রি রোবট ফুটবল লীগ-২০১৭ উপলক্ষে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগ ও রোবটিক্স ক্লাব আয়োজিত পুরস্কার বিতরণ ও সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন ।

প্রফেসর অনুপম সেন আজকের বিশ্বকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির বিশ্ব উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশের ছেলে-মেয়েরা মেধাবী। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে অবদান রাখার ক্ষেত্রে একসময় তারা সুযোগ কম পেলেও, বর্তমানে পর্যাপ্ত সুযোগ পাচ্ছে। ফলে আশা করা যায়, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থীরাও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে এবং পৃথিবীতে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ছড়িয়ে দেবে।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্য প্রদানের পূর্বে থ্রি অন থ্রি রোবট ফুটবল লীগ প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা উপভোগ করেন। তিনি বক্তব্যে খেলা দেখে তাঁর আনন্দ ও ভাললাগার অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান মো. ইফতেখার মনিরের সভাপতিত্বে এ-অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রেজিস্ট্রার ইঞ্জিনিয়ার মো. আবু তাহের, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. বেনু কুমার দে, ডেপুটি রেজিস্ট্রার খুরশিদুর রহমান, উপ-পরিচালক (হিসাব) হাছানুল ইসলাম চৌধুরী, রোবটিক্স ক্লাবের উপদেষ্টা টোটন চন্দ্র মল্লিক, নর্থ ওয়েস্ট গ্রুপের ডিরেক্টর সৈয়দ জালাল আহমেদ রুম্মান প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ও এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন রোবটিক্স ক্লাবের মেন্টর মো. সাইফুদ্দীন মুন্না ও রাহুল চৌধুরী।