খুটাখালীতে কোডেক শিখন স্কুলের সাফল্য উদযাপন

প্রকাশ:| সোমবার, ৪ জানুয়ারি , ২০১৬ সময় ০৯:১১ অপরাহ্ণ

কোডেক শিখন স্কুল

ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের অর্থায়নে সেভ দ্যা চিলড্রেনের কারিগরি সহযোগীতায় কমিউনিটি ডেভলাপম্যান্ট সেন্টার কোডেক শিখন প্রকল্পের উদ্যোগে চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে শিখন স্কুলের ২০১৫ সালের পিইসি পরীক্ষায় উত্তির্ণদের সংবর্ধনা ও সনদ বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার ৪ জানুয়ারী বিকেলে কিশলয় স্কুল মাঠে আয়োজিত সাফল্য উদযাপন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কিশলয় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নুরুল কবির। উপজেলা শিখন প্রকল্পের শিক্ষক প্রশিক্ষক হাসেম উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মু: আবদুর রহমান। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কোডেক শিখন প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী রতন চক্রবর্তী। এতে বিশেষ অতিথিদের মধ্যে উপজেলা ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর সুমন সিকদার, শিক্ষক প্রশিক্ষক সুজয় বড়–য়া, লার্নিং ফ্যাসিলিটেটর দেলোয়ার হোসাইন, কিশলয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মাষ্টার রেজাউল করিম রেজু, খুটাখালী শিখন স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাঈদ মো: শাহাজালাল ও সাংবাদিক সেলিম উদ্দিন বক্তব্য রাখেন। খুটাখালী ইউনিয়ন লার্নিং ফ্যাসিলিটেটর ফারুক মিয়া অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের ৮ টি শিখন স্কুল, ৫টি শিখন কেন্দ্র ও ২ টি শিখন ক্লাবের সার্বিক চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য দেয়ার মাঝখানে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের মায়েরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এসময় মেদা কচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এস.এম আবুল হোছাইন, খুটাখালী আ‘লীগ সহ সভাপতি শেখ বশির আহমদ হেলালী, ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার আনোয়ার হোছাইন, ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন, শিখন স্কুলের শিক্ষিকা যথাক্রমে পারভিন আকতার, মালেকা পারভিন, রুবি আকতার, রোকসানা আকতার, জান্নাতুল ফেরদৌস, রাইহান পারভিন, হাসনে আরা, খালেদা বেগম, রাশেদা বেগম, রাচনা খানম চুমকি, রহিমা বেগম, শাহিনা, জুলেখা খানম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা বিগত ২০১৫ সালে শিখন স্কুল থেকে ২৩৮ জন শিক্ষার্থীর সাফল্যকে শিক্ষাক্ষেত্রে ইতিবাচক উল্লেখ করে ইউনিয়নের শিশু শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধ কল্পে বিশেষ ভাবে কাজ করেছে বলে মন্তব্য করেন। বক্তারা আরো বলেন এনজিও ভিত্তিক শিক্ষা প্রতিষ্টান কোডেক শিখন স্কুল অজপাড়া গাঁয়ে শিক্ষার আলোর প্রদ্বীপ জ্বালিয়েছে। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল হত দরিদ্র শিশু জামাল উদ্দিনের জিপিএ ৫ প্রাপ্তি। সভায় প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষার্থীসহ পিতা-মাতা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে আমন্ত্রিত অতিথিরা শিক্ষার্থীদের হাতে সনদপত্র তুলে দেন।


আরোও সংবাদ