শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে বিভাগীয় শহর রংপুর

প্রকাশ:| শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:৩০ অপরাহ্ণ

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠেছে বিভাগীয় শহর রংপুর। তাকে বরণ করতে নেতা কর্মীরা রাস্তার দু’ধারে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছে।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, বেলা ১২ টায় বগুড়া থেকে রংপুরের উদ্দেশে রওয়ানা হবেন খালেদা জিয়া। বেলা ২ টায় রংপুর সার্কিট হাউজে পৌঁছাবেন। ৪ টায় জনসভা মঞ্চে আসন গ্রহণ করবেন তিনি।

বেগম জিয়ার আগমন উপলক্ষে জনতার ঢল নেমেছে রংপুর শহরে। সকাল থেকে মিছিলে মিছিলে প্রকম্পিত গোটা শহর।

রংপুর বিএনপি জানিয়েছে, বেলা ২ টায় রংপুরের প্রবেশ দ্বার নগরীর মডার্ন মোড়ে বরণ করা হবে নেত্রীকে। নগরীর মডার্ণ মোড় থেকে ৩০টি ঘোড়ার গাড়ির বহর দিয়ে চেক পোস্টে আনা হবে বেগম জিয়াকে। ২ ঘন্টা সার্কিট হাউজে থাকার পর বিকাল ৪ টায় মূল মঞ্চে আসবেন তিনি।

জেলা বিএনপির আহবায়ক মোজাফফর হোসেন জানান, আয়োজন শেষ। আমরা ম্যাডাম জিয়ার জন্য অপেক্ষা করছি।k-zia-14.9উত্তরবঙ্গ সফরের উদ্দেশে রওয়ানা হওয়া বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক অভ্যর্থনা জানিয়েছে জেলা বিএনপি ও ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা।

গত রাত ৯টার দিকে তার গাড়িবহর সিরাজগঞ্জে প্রবেশ করে। এর আগে ঘণ্টাখানেক অবস্থান শেষে রাত সাড়ে আটটার দিকে যমুনা রিসোর্ট থেকে তিনি বগুড়ার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন।

তার গাড়িবহর সিরাজগঞ্জ ১ এলাকার কড্ডার মোড়ে পৌঁছালে কণ্ঠশিল্পী কনকচাঁপার সমর্থকরা তাকে বিপুল অভ্যর্থনা জানান। পরে সিরাজগঞ্জ মোড়ে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খানের কয়েকশ সমর্থকও খালেদাকে শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানায়।

মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে চেয়াপার্সনের উত্তরবঙ্গ সফরের সাফল্য কামনা করে ব্যানার ও ফেস্টুন লাগানো হয়।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় যমুনা রিসোর্টে এসে পৌঁছে বিএনপি নেত্রীর গাড়ি বহর।

প্রসঙ্গত, শনিবার বেলা তিনটা ৫০ মিনিটে গুলশানস্থ বাসভবনের সামনে থেকে উত্তরবঙ্গের উদ্দেশে রওয়ানা হন তিনি।

গাড়িতে খালেদা জিয়ার সঙ্গে আছেন জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা। শতাধিক গাড়ির এ বহরে অন্যদের মধ্যে আছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা, যুগ্ম মহাসচিব মিজানুর রহমান মিনু, খালেদা জিয়ার প্রেস সেক্রেটারি মারুফ কামাল খান সোহেল, বিশেষ সহকারী এ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসসহ বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা।

শনিবার রাতে বগুড়া পৌঁছে সার্কিট হাউজে রাত্রি যাপনের পর রোববার দুপুর বারোটায় রংপুরের উদ্দেশে রওনা হবেন খালেদা। দুপুর দুইটায় রংপুর সার্কিট হাউজে পৌঁছে রংপুর জিলা স্কুল মাঠে আয়োজিত জনসভ‍ায় ভাষণ দিতে উপস্থিত হবেন বিকেল চারটায়।

জনসভা শেষে সার্কিট হাউজে ফিরে বিশ্রাম নিয়ে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বগুড়ার উদ্দেশে রওয়ানা হবেন তিনি। বগুড়া সার্কিট হাউজে রোববার রাত্রি যাপনের পর রাজশাহীর উদ্দেশে রওয়ানা হবেন সোমবার দুপুর বারোটায়।

রাজশাহী পৌঁছে সার্কিট হাউজে বিশ্রাম নিয়ে রাজশাহী মাদ্রাসা মাঠে জনসভায় উপস্থিত হবেন বিকাল চারটায়। বক্তব্য শেষে সার্কিট হাউজে ফিরে বিশ্রাম শেষে রাত সাড়ে সাতটায় ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন তিনি। পথিমধ্যে রাত দশটায় যাত্রাবিরতি করবেন টাঙ্গাইলের যমুনা রিসোর্টে।

বিরোধী দলীয় নেতার একান্ত সচিব এ এস এম সালেহ আহমেদ খালেদা জিয়ার উত্তরাঞ্চল সফরের এই সূচি ও রুটের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
উত্তরবঙ্গ সফরের উদ্দেশে রওয়ানা হওয়া বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া বগুড়া সার্কিট হাউজে পৌঁছেছেন। তিনি বগুড়ায় পৌঁছালে কয়েকশ মোটরসাইকেল তাকে স্বাগত জানিয়ে শোডাউন করে।

রাত ১০টার দিকে তার গাড়িবহর বগুড়া সার্কিট হাউজে পৌঁছায়।