খালেদার মুক্তির দাবিতে নগর বিএনপির লিফলেট বিতরণ

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ১ এপ্রিল , ২০১৮ সময় ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

অনির্বাচিত সরকারের দলীয়কর করা প্রশাসনের কাছে সুশাসনের প্রত্যাশা দুরাশায় পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার সোনালী অর্জন গণতন্ত্র, সুশাসান ও বৈষম্যহীন সমাজ সরকারের দুর্নীতি, অনাচার ও স্বৈরাচারের হাতে অর্থহীন।

রোববার সকালে নগরীর কাজীর দেউড়ি মোড়ে বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে লিফলেট বিতরণকালে এসব কথা বলেন। কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নগর বিএনপি এ কর্মসূচি পালন করে।

শাহাদাত হোসেন বলেন, সরকারের অনুগত নির্বাচন কমিশন এবং প্রশাসনের সহায়তায় জাতীয় সংসদ ও সবগুলো স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানকে দখল করা হয়েছে। ক্ষমতা কুক্ষিগত করতে রাষ্ট্রীয় সংবিধান থেকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ও গণভোটের বিধান বাতিল করে অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন এবং জনগণের মত প্রকাশের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

নগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, জিয়া অরফনেজ ট্রাস্টের মামলায় বেগম জিয়াকে জেলে নেওয়া হয়েছে। অথচ এই ট্রাস্ট গঠন ও পরিচালনার সঙ্গে বেগম জিয়া প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত ছিল না।

‘তিনি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান কিংবা স্বাক্ষরকারী ছিলেন না। অর্থ আত্মসাৎ তো দূরের কথা বেগম জিয়া বা তার পরিবারের কোন সদস্য ওই একাউন্ট থেকে এক টাকাও উত্তোলন করেনি। বিচার ব্যবস্থাকে কবজা করে মিথ্যা রায়ের মাধ্যমে শেখ হাসিনা তার চরম রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করেছে।’

নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর বলেন, বাংলাদেশের প্রতিবাদী জনগণের কণ্ঠস্বর, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা অভিযোগে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। হাইকোর্টে জামিন পেলে ও অসুস্থ নেত্রীর জামিনের আপিল শুনানির জন্য দেড় মাসেরও বেশি সময় দেওয়া অস্বাভাবিক ঘটনা।

বহুদলীয় গণতন্ত্র, আইনের শাসন, বৈষম্য ও বঞ্চনাহীন সমাজ প্রতিষ্ঠায় দেশবাসীকে সরকারের একদলীয় শাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁডানোর আহ্বান জানিয়ে আগামী মঙ্গলবারের বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার আহবান জানান।

লিফলেট বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে নগর বিএনপির সহ-সভাপতি এম এ আজিজ, মো. মিয়া ভোলা, হাজী মো. আলী, অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, মো. ইকবাল চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক এস এম সাইফুল আলম, কাজী বেলাল উদ্দিন, এসকান্দর মির্জা, আর ইউ চৌধুরী শাহীন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আবদুল মন্নান, সামশুল হক,সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, নগর মহিলা দল সভানেত্রী মনোয়ারা বেগম মনি, প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মো. আলী মিঠু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।