খালেদার দুর্নীতির বিচার ঠেকানো যাবে না-মেনন

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮ সময় ০৯:০৪ অপরাহ্ণ

রাস্তায় সহিংসতা করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দুর্নীতির বিচারের রায় ঠেকানো যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) নগরীর দোস্ত বিল্ডিংয়ে দলটির চট্টগ্রাম জেলা বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করে বলেন, এ ধরণের ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা হলে ২০১৪ সালের মতো জনগণ তাদের কঠোরভাবে প্রতিহত করবে।

তিনি বলেন, আইন সাধারণ মানুষের জন্য যা, খালেদার জন্যও তা-ই। বিহারের জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদব যদি দুর্নীতির জন্য জেলের ভাত খেতে পারেন, সম্প্রতি বিভিন্ন দেশের শাসকরা দুর্নীতির জন্য যদি সাজা খাটতে পারেন খালেদা জিয়ার ক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম হবে কেন? আর এখানে তো এতিমের হক মারা হয়েছে।

এ অপরাধ অত্যন্ত ন্যক্কারজনক এবং তা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে মন্তব্য করে মেনন বলেন, খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত যদি কোনো অঘটন ঘটাতে চায় সে সম্পর্কে পার্টির নেতা-কর্মীদের সজাগ থাকতে হবে। মামলার রায় সম্পর্কে বিএনপি এমনই ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে যে দলের গঠনতন্ত্রের এতদসংক্রান্ত ধারাও পরিবর্তন করেছে। আসলে দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন নয়, দুর্নীতি, সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদের প্রসার এবং তাদের ওপর নির্ভরতাই বিএনপির আসল বৈশিষ্ট্য। ইতিহাস হচ্ছে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান দুর্নীতিকে তার রাজনীতির প্রধান উপজীব্য করেছিলেন। আর বিএনপি-জামায়াত শাসনের সময় দুর্নীতিকে সমাজদেহে প্রোথিত করে দুর্নীতির এক স্বর্গরাজ্য গড়ে তোলে।

এ বছরকে দেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ আখ্যা দিয়ে রাশেদ খান মেনন বলেন, ডিসেম্বরের নির্বাচনে সিদ্ধান্ত হবে দেশের বর্তমানে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক উন্নয়নের ধারা অগ্রসর হবে, নাকি বিএনপি-জামায়াতের দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন, হাওয়া ভবনের লুটপাট, সাম্প্রদায়িক সহিংসতা, জঙ্গিবাদের অতল গহ্বরে পুনরায় পতিত হবে।

সভা থেকে আগামী ৩ মার্চ ওয়ার্কার্স পার্টির ২১ দফা দাবিতে ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ সফল করার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, কিন্তু সে অগ্রযাত্রায় কৃষক, শ্রমিক, শ্রমজীবী মধ্যবিত্তরা

তার সহযাত্রী হতে পারছে না। এই উন্নয়নের ধারায় সব মানুষকে সম্পৃক্ত করতে হবে।ওয়ার্কার্স পার্টির ২১ দফার ভিত্তিতে সমতা ও ন্যায্যতা ভিত্তিক অসাম্প্রদায়িক আধুনিক জনগণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান জানিয়ে তাতে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হবার আহ্বান জানান তিনি।

পার্টির চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সভাপতি কমরেড আবু হানিফের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শরীফ চৌহানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন জেলা সদস্য কমরেড নুরুল ইসলাম, ইন্দ্র কুমার নাথ, মোক্তার আহম্মদ, দিদারুল আলম চৌধুরী, যুব মৈত্রী চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি কায়সার আলম, আবু সৈয়দ বলাই, শান্তপদ বড়ুয়া মনু, মনসুর মাসুদ, যুব মৈত্রী চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক নুর নবী আরিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক খোকন মিয়া, ছাত্র মৈত্রী চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি সম্পদ রায়, নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ সিকদার, জেলা সাধারণ সম্পাদক আলা উদ্দীন, ক্ষেতমজুর ইউনিয়ন জেলা কমিটির আহ্বায়ক পরাগ বড়ুয়া, শ্রমিক নেতা জসীম উদ্দিন, মকবুল আহম্মদ, সামসুল আলম, গার্মেন্টস নেতা ফয়েজ আহম্মদ প্রমুখ।