খাজা মঈনুদ্দীন চিশতী (রহ.) আদর্শ অনুসরণ করলে জঙ্গীবাদ সৃষ্টি হতো না

প্রকাশ:| শনিবার, ২২ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ০৯:৫১ অপরাহ্ণ

আতায়ে রাসুল (দ.), সুলতানুল হিন্দ হযরত খাজা গরীবে নেওয়াজ মঈনুদ্দীন চিশ্তী আজমিরী (রহ.) এর বার্ষিক ওরশ মাহফিল গত ২০ এপ্রিল বাদে মাগরীব নগরীর বলুয়ার দিঘীর পাড়স্থ খানকা-এ-কাদেরীয়া ছৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়া সংলগ্ন সড়কে ওরশ পরিচালনা কমিটির উপদেষ্ঠা আলহাজ্ব নুর আহমদ পিন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান এতে তকরির পেশ করেন মাওলানা মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন আলকাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল আওয়াল, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুর রহমান। বক্তব্য রাখেন নগর গাউসিয়া কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক ছাবের আহমদ, মুহাম্মদ আহমদ ইমু, মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন, হাজী জান মুহাম্মদ সওদাগর, লায়ন নুরুল ইসলাম, হাজী আব্দুল মান্নান, আব্দুর রহিম, শাকেরুল ইসলাম সুজন, মুহাম্মদ মহসিন, মুহাম্মদ আসিফ। মাহফিলে বক্তারা বলেন, প্রায় আট শত বছর আগে এশিয়ান উপ মহাদেশে মদিনার ইসলামের আলোক বর্তিকা হিসেবে আগমন করেছেন হযরত খাজা মঈনুদ্দীন চিশ্তী (রহ.)। দিশাহারা মানুষকে সত্যিকার দ্বীন-ইসলামের পথে এনে একটি সুন্দর সমৃদ্ধ ও সম্প্রীতির সমাজ উপহার দিয়েছে গরীবে নেওয়াজ (রহ.)। খাজা মঈনুদ্দীন চিশতী (রহ.) এর আদর্শ অনুসরণ করলে জঙ্গীবাদ সৃষ্টি হতো না। যার কারণে জাতি ধর্ম নির্বিশেষে গরীবে নেওয়াজকে আজো শ্রদ্ধার সাতে স্মরণ করেন। মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাজী সাব্বির আহমেদ, হাজী সিদ্দিক আহমেদ, হাজী ফরিক মুহাম্মদ, আফতাবুর রহমান শাহিন, মুহাম্মদ আবুল কাসেম, মুহাম্মদ কাইয়ুম রেজা, মুহাম্মদ নুরুল আবছার, মুহাম্মদ মামুনুর রশিদ, মুহাম্মদ ইয়াকুব খান প্রমুখ। দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বাদে ফজর হতে পবিত্র খতমে কোরআন, খতমে গাউসিয়া, খতমে খাজেগান, সালাতু সালাম, বাদে এশা মাহফিল। পরে বিশ্ব মানবতার শান্তি অগ্রগতি ও মুসলিম উম্মাহর মঙ্গল কামনা করে আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল আওয়াল। মাহফিল ও তাবরুক বিতরণ শেষে খুরশীদ হাসান ও রুস্তম আলী কাওয়ালী পরিবেশনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শেষ হয়।