খাগড়াছড়িতে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, গাড়িতে আগুন ভাংচুর

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৮ জুন , ২০১৭ সময় ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশি বাধা বিজিবি পুলিশসহ আহত ৯ আটক ১৯ প্রতিবাদে মালবাহী গাড়িতে আগুন ২০টি গাড়ি ভাংচুর

শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়িতে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারি বাহিনীর সাথে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত হয়েছে ৩ বিজিবি সদস্য । আহতরা হলেন, হাবিলদার হাবিবুর রহমান (৫০) বিজিবি সদস্য কামরুজ্জামান ও মো, রুবেল। বুধবার সকাল সারে ১০টার সময় স্বনির্ভর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে, এসময় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ২ নেত্রীসহ ১৯ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান জানান, কোন অনুমতি ছারা তারা বিক্ষোভ মিছিল করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। এসময় পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে গেলে টহলরত বিজিবির সহযোগীতা চাওয়া হয়।

৩২ বিজিবি অধিনায়ক লে.কর্ণেল হাসানুজ্জামান চৌধুরী জানান, পূর্ব কোনো কর্মসূচি ছারা হঠাৎ বেলা সারে ১০টার দিকে স্বনির্ভর বাজার থেকে বিক্ষোভ সমাবেশ করার চেষ্টা করে ইউপিডিএফ ও হিলউইমেন্স ফেডারেশন। এ সময় পুলিশ বাঁধা দেয়। কিন্তু পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে গেলে বিজিবির কাছে সহযোগীতা চাওয়া হয়। বিজিবি ঘটনাস্থলে পৌঁছা মাত্র সমবেত ইউপিডিএফ ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কর্মীরা বিজিবি ও পুলিশের উপর আক্রমন করে এলোপাথারী ইটপাটকেল ও গুলতি ছুড়তে থাকে। এসময় ইটপাটকেল ও গুলতির আঘাতে তিনজন বিজিবি সদস্যসহ পুলিশের বেশ কয়েকজন আহত হয়।

পুলিশি আটকের ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার দুপুর ১টার পর থেকে চট্টগ্রাম, রামগড়, মহালছড়ি, পানছড়ি সড়কে ইউপিডিএফ সমর্থিত পিসিপি ও হিলউইমেন্স ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা রাস্তার পাসের গাছ কেটে অবরোধ করে মালবাহী গাড়ীতে আগুন ও ভাংচুর শুরু করে।

পরিবহন মালিক গ্র“পের সাধারন সম্পাদক হাজ্বী মোঃ এস এম শফি জানান, খাগড়াছড়ির বিভিন্ন স্থানে মালবাহী গাড়িতে আগুন এবং ১০টি সিএনজি, ৫টি কোস্টার ও ৫টি ফিকআপ গাড়ি ভাংচুর এবং ড্রাইভার শ্রমিকদের মারধর করেছে ইউপিডিএফ সমর্থিত পিসিপি ও হিলউইমেন্স ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা।

এদিকে, এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে কল্পনা চাকমা’র অপহরণকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলে বিজিবি-পুলিশের হামলা ও গণ ধরপাকড়ের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন, উইমেন্স ফেডারেশন, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ। তিন সংগঠনের পক্ষ থেকে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি অংগ্য মারমা ও পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি বিনয়ন চাকমা সংবাদ মাধ্যমে এই বিবৃতি প্রদান করেন।

খবংপুয্যা ও স্বনির্ভর বাজারে দোকানপাটে তল্লাশি চালিয়ে সংগঠনের কর্মী-সমর্থকসহ প্রায় ২৫ জনকে আটক করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয় বিবৃতে ।