ক্যাবল ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষ আহত ৪

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৯ জুলাই , ২০১৬ সময় ১১:১৮ অপরাহ্ণ

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও প্রতিনিধি: চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে ডিস ক্যাবল লাইনের তার কাঁটাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে কমবেশি ৪ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন এইচআর ক্যাবলের মালিক পশ্চিম নয়াপাড়ার মৃত মোস্তফা কামালে পুত্র হুমায়ুন কবির (৩০) ও খুটাখালী ক্যাবলের পরিচালক ইউনিয়নের পূর্বপাড়ার নূর আহমদ ড্রাইভারের পুত্র মো: ইসমাঈল (৩৪)। বুধবার বিকেলে ইউনিয়নের হাফেজখানা সড়ক ও বাজারস্থ ক্যাবল কন্ট্রোল রুমে দুদফে ঘটে এ ঘটনা। গুরুত্বর আহত অবস্থায় দুজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে হুমায়ুনের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খুটাখালীতে এইচআর ক্যাবল নেটওয়ার্ক ও খুটাখালী ক্যাবল নেটওয়ার্ক নামে দুটি ডিস লাইন রয়েছে। তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে লাইন সার্ভিস, ক্যাবল তার কাঁটাছেড়া ও লোকজনকে মারধর করে হুমকি ধমকির বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি বিষয়টি সংঘর্ষে রূপ দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার বিকেলে এইচআর ক্যাবল নেটওয়ার্কের লোকজন হাফেজখানা সড়কে ক্যাবল জোড়া লাগাতে যায়। বিষয়টি খুটাখালী ক্যাবল নেটওয়ার্কের লোকজন ক্যাবল কাঁটা হচ্ছে জেনে ঘটনাস্থলে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে বিষয়টি সংঘর্ষে রূপ নেয়।
গুরুত্বর আহত এইচআর ক্যাবলের মালিক হুমায়ুন জানায়, বুধবার বিকেলে মো: ইসমাঈল ও তার ভাই আবদুর রহমান, ইলিয়াছ, মুজিব, ইছহাকের নেতৃত্বে লাঠিসোটা নিয়ে বাজারস্থ তার অফিসে হামলা চালায়। এসময় তাকে মারধর করে দুটি দাঁত ফেলে দেয় এবং ফাইভার মেশিন, ক্যাশে রক্ষিত সাড়ে ৩৪ হাজার টাকা একটি মোবাইল সেট লুট করে তাকে অপহরনের চেষ্টা চালায়। তার শোর চিৎকারে বাজারের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। অপরদিকে খুটাখালী ক্যাবল নেটওয়ার্কের পরিচালক আহত ইসমাইল জানায়, হাফেজখানা সড়কে প্রথমে তার লোকজনকে এইচআর ক্যাবলের লোকজন মারধর করেন। খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও ব্যাপক মারধর করা হয়। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ঘটনা শুনেছি তবে কোন পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে জানায়।