কেন্দ্রীয় নেতা ছাড়াই পটিয়ায় দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ:| বুধবার, ৩ মে , ২০১৭ সময় ১১:১২ অপরাহ্ণ

পটিয়া প্রতিনিধি॥ দক্ষিণ জেলা বিএনপির কর্মী সভায় পটিয়ায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর কেন্দ্রীয় নেতা ছাড়াই শেষ পর্যন্ত কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গাজী মোঃ শাহজাহান জুয়েলের সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মোজাম্মেল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নুরী আরা সাফা, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ইফতেখার হোসেন চৌধুরী মহসীন, সফিউল আলম জকু, এডভোকেট ফোরকান, পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ চৌধুরী টিপু, চেয়ারম্যান আজিজুল হক, যুগ্ম সম্পাদক মনজুর উদ্দীন চৌধূরী, কামরুল ইসলাম হোসাইনী, সহ- সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক এস,এম, মামুন মিয়া, প্রচার সম্পাদক নাজমুল মোস্তফা আমিন, দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট আবু তাহের, চেয়ারম্যান মুজিব, পটিয়া পৌরসভা বিএনপির আহবায়ক নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক কবিয়াল আবু ইউসুফ, বোয়ালখালী পৌরসভা সেক্রেটারী মো. ইসহাক, কর্ণফুলী বিএনপি সভাপতি এহসান এ খান, পটিয়া উপজেলা সভাপতি আবদুল জলিল চৌধুরী, সাধারণ সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম, চন্দনাইশ বিএনপি সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, লোহাগাড়া বিএনপি সাধারণ সম্পাদক ছলিম উদ্দীন খোকন, বাঁশখালী বিএনপি সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান ইব্রাহিম বিন খলিল, চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান, সহ-সভাপতি মো. শাহজাহান চৌধূরী।
সভায় গাজী মোঃ শাহজাহান জুয়েল বলেন, আওয়ামী লীগের কিছু কুচক্রীমহলের ইন্ধনে গাড়ী ভাংচুরসহ কর্মী সভায় বিশৃঙ্খলা করে নেতাকর্মীর উপর হামলা করেছে। অবিলম্বে তাদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান এবং সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে কাজ করার আহবান জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে কর্মী সভার শুরুতেই মঞ্চ থেকে কোনো নেতার নামে শ্লোগান না দিতে সমর্থকদের প্রতি নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু দক্ষিণ জেলা সহ-সভাপতির নামে তার সমর্থকরা শ্লোগান দিতে শুরু করে।

এসময় অন্যান্যরা তাদের বাধা দিলে শুরু হয় কথা কাটাকাটি। এক পর্যায়ে নিজেদের মধ্যে হট্টগোল, চেয়ার ছোঁড়াছুড়ি ও সংঘর্ষ হয়। এতে সভাস্থলের অন্তত ১০ জন আহত হয়।

বুধবার বেলা সোয়া তিনটায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পটিয়া সদরের ইন্দ্রপোল এলাকার একটি কমিউনিটি সেন্টারের সামনে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির কর্মিসভায় দলের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পটিয়ার সাবেক এমপি গাজী মো. শাহজাহান জুয়েল এবং দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রাক্তন সহসভাপতি এনামুল হক এনামের অনুসারীদের মধ্যে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার এক পর্যায়ে এনামের অনুসারীরা চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কে অর্ধ শতাধিক গাড়ি ভাঙচুর করে এবং রাস্তায় ব্যারিকেড দেয়। ঘটনার পরপরই পুলিশ মো. আকবর নামের (২০) এক তরুণকে আটক করেছে। তিনি উপজেলার বুধপুরা গ্রামের মোতাহের উল্লাহর পুত্র ও এনামের অনুসারী।

এদিকে কর্মী সভায় হট্টগোল করে মিছিল সহকারে দক্ষিণ জেলা বিএনপি নেতা এনামুল হক এনাম প্রবেশ করতে চাইলে তাদের সেখান থেকে তাদের বিশৃংখালা সৃষ্টির অপরাধে পিটিয়ে বের করে দেয়া হয় বলে জানিয়েছে দক্ষিণ জেলা বিএনপি কর্মী আবুল হাসেম।
আন্যদিকে দক্ষিণ জেলা বিএনপির আরেক কর্মী ইমরান জানান তারা মিছিল নিয়ে প্রবেশ করতে চাইলে তাদের উপর চড়াও হয় জুয়েল গ্রুপ। এ সময় এনামুল হক এনামসহ বেশ কজন নেতা গুরুতর আহত হয়। বর্তমানে এনামুল হক এনাম একটি বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।


আরোও সংবাদ