কৃষি, শিক্ষা ও খাদ্যেসহ সর্বক্ষেত্রে স্বাবলম্বী হচেছ মানুষ-মেয়র

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট , ২০১৫ সময় ০৯:২৫ অপরাহ্ণ

মোহরায় সিটি মেয়র

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, জাতির জনকের সোনার বাংলাকে তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল ও মধ্য আয়ের দেশে পরিনত করছে। তিনি বলেন, মার্কিনীদের তলাবিহীন বাংলাদেশ আজ তাদের ভাষা অসম্ভব সম্ভবের দেশে পরিনত হয়েছে। তারা বিভিন্ন দেশেকে বাংলাদেশে এসে উন্নয়ন দেখে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে। মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ নিন্মমধ্য আয়ের দেশে পরিনত হয়েছে। বাংলাদেশ দারিদ্রের অভিশাপ থেকে ধীরে ধীরে মুক্ত হচ্ছে। বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় বেড়েছে, গড় আয়ু বেড়েছে, ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে, খাদ্য রপ্তানী করছে, কৃষি, শিক্ষা ও খাদ্যেসহ সর্বক্ষেত্রে স্বাবলম্বী হচেছ। প্রবৃদ্ধির হার ৬ শতাংশের উপরে। রিজার্ভ মানি ২৪ বিলিয়ন ইউএস ডলার ছাড়িয়ে গেছে। বিশ্বের বহু রাষ্ট্র বাংলাদেশকে মডেল রাষ্ট্র হিসেবে অনুসরন করছে। তিনি বলেন, অতীতে অনেকেই রাষ্ট্র পরিচালনা করছে কেউই এ দেশের উন্নয়ন, সুনাম ও সুখ্যাতি বাড়াতে পারেনি। যাদের দেশপ্রেম নেই, দেশের মানুষের প্রতি যাদের দরদ নেই, যাদের স্বজাতির প্রতি অঙ্গীকার নেই, তাদের নিকট জাতি কিছুই আশা করতে পারে না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। আওয়ামীলীগ দেশ পরিচালনা করছে বলেই দেশের সুনাম ও সুখ্যাতি বিশ্বময় ছড়িয়ে যাচ্ছে। মেয়র জাতির জনকের আদর্শ বাস্তবায়নে দলমত নির্বিশেষে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। ৪ আগষ্ট ২০১৫খ্রি. মঙ্গলবার বিকেলে মোহরাস্থ ইষ্পাহানী জামে মসজিদ ময়দানে বীর মুক্তিযোদ্ধা সেকান্দর হায়াত খান স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪০ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষনে তিনি এ সব কথা বলেন। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সেকান্দর হায়াত খান স্মৃতি পরিষদের আহবায়ক মহিলা কাউন্সিলর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা মিসেস জোবাইরা নার্গিস খান। আলোচনা সভার পূর্বে জাতির জনক ও ১৫ আগষ্ট এর সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় খতমে কোরআন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করা হয় এবং শুরুতে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আলোচনা করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, সাবেক কাউন্সিলর মিসেস রেখা আলম চৌধুরী, মরহুম সেকান্দর হায়াত খানের সন্তান আশেক রসুল খান বাবু, কাউন্সিলর তারেক সোলায়মান সেলিম, মো. আজম, মোরশেদ আকতার চৌধুরী, কফিল উদ্দিন খান, মহিলা কাউন্সিলর মিসেস আঞ্জুমান আরা বেগম, জেসমিন খানম জেসি, ফারহানা জাবেদ, আওয়ামীলীগ নেতা মো. ইসা, হাবিবুর রহমান হাবিব, দিপু চৌধুরী, অধ্যাপক দীলিপ কুমার, মতি লাল দেওয়ানজি, অলিদ চৌধুরী, আবুল কালাম, হাসানুল করিম, এম এ মোতালেব, নুর মোহাম্মদ, নিউটন কুমার মজুমদার সহ অন্যরা । আলোচনা সভা পরিচালনা করেন ইমতিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী ও মো. ইস্কান্দর আলী। আলোচনা সভায় মোহরা, চান্দগাঁও ও পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। সিটি মেয়রের উপস্থিতিতে আলোচনা সভাটি জনসভায় পরিনত হয়।