কৃষি বিষয়ে পড়াশুনা

প্রকাশ:| বুধবার, ২৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:১১ অপরাহ্ণ

কৃষিকৃষি এদেশের প্রাণ ও প্রধান অর্থনীতিক চালিকা শক্তি। একটা সময় ছিল যখন কৃষিকে নিয়ে শুধু কৃষিবিদরাই ভাবতেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের চিন্তা-চেতনারও পরিবর্তন এসেছে। এখন সচেতন মানুষেরাও ভাবছেন কৃষিকে নিয়ে।

একসময় কৃষিতে উচ্চতর ডিগ্রি নেয়া বা উচ্চশিক্ষিত লোক কৃষিকে পেশা হিসেবে বেছে নেবেন এমনটি ছিল অকল্পনীয়। কিন্তু বর্তমানে কৃষিখাতেই রয়েছে উজ্জ্বল ক্যারিয়ারের হাতছানি।

কেউ যদি কৃষিতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে চান তাহলে তাকে অবশ্যই মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞান বিভাগে নিয়ে পড়াশোনা করতে হবে। দ্বিতীয় ধাপ হলো স্নাতক পর্যায়ে দেশের সরকারি অথবা বেসরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করা।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়:
অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

আসন সংখ্যা: ভেটেরিনারি অনুষদ-১৯১টি, কৃষি অনুষদ-৪০৩টি,পশুপালন অনুষদ-১৯১টি, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ-১৩৩টি, কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরি অনুষদ-১৪৯, মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ-১৩৩টি।

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০নম্বর সহ মোট ২০০নম্বর গণনা করা হয় ।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত ও জীববিজ্ঞান বিষয়গুলোর উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (http://admission.bau.edu.bd) পাওয়া যাবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়:
এসএমএস (SMS) এর মাধ্যমে আবেদনের সময়সীমা ১ আগস্ট থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত । ভর্তি পরীক্ষা ৯ নভেম্বর অনুষ্টিত হবে ।

আসন সংখ্যা: ভেটেরিনারি অনুষদ-৬০টি, কৃষি অনুষদ-১১০টি, কৃষি অর্থনীতি-৭০টি, মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদ-৬০টি।

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর আর এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০ নম্বরসহ মোট ২০০ নম্বর গননা করা হয় ।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিদ্যা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান বিষয়ের উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.bsmrau.edu.bd) পাওয়া যাবে।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়:
অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা ১৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

আসন সংখ্যা: কৃষি অনুষদ-৩৫০, অ্যাগ্রি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অনুষদ-৭৫, এ্যনিম্যাল সাইন্স এ্যান্ড ভেটেরিনারি অনুষদ-৫০

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর আর এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০ নম্বর সহ মোট ২০০নম্বর গণনা করা হয় ।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞান, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান বিষয়গুলোর উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.sau.edu.bd) পাওয়া যাবে।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়:
আসন সংখ্যা: ভেটেরিনারি অনুষদ-৮০টি, কৃষি অনুষদ-৭০টি, বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিকস ইনজিনিয়ারিং অনুষদ-৩০টি, কৃষি অর্থনীতি অনুষদ-৫০টি, কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরি অনুষদ-৫০টি, মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ-৬০টি।

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর এবং এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০ নম্বরসহ মোট ২০০ নম্বর গননা করা হয় ।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত ও জীববিজ্ঞান, ইংরেজি বিষয়গুলোর উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.sau.ac.bd) পাওয়া যাবে ।

হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়:
এসএমএস (sms) এর মাধ্যমে আবেদনের সময়সীমা ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১১ অক্টোবর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা ২ নভেম্বর অনুষ্টিত হবে।

আসন সংখ্যা: কৃষি ও কৃষিব্যবসা অনুষদ-১২৫টি, কৃষি অনুষদ-২৫০টি, মৎস্য বিজ্ঞান অনুষদ-১২০টি।

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর আর এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০ নম্বরসহ মোট ২০০ নম্বর গণনা করা হয় ।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, জীববিদ্যা, ইংরেজি বিষয়গুলোর উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের একঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.hstu.ac.bd) পাওয়া যাবে।

পটুয়াখালি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়:
অনলাইনে আবেদনের সময়সীমা ১ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষা ৫ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

আসন সংখ্যা: অ্যানিম্যাল সাইন্স অ্যান্ড ভেটেরিনারি অনুষদ-১১০টি, কৃষি অনুষদ-১৯৩টি, পশুপালন অনুষদ-১৯১টি, ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অনুষদ-৫৫টি, নিউট্রিশন অ্যান্ড ফুড সাইন্স অনুষদ-৫৫টি, মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ-৫৫টি।

লিখিত পরীক্ষায় ১০০ নম্বর আর এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফল থেকে যথাক্রমে ৪০ ও ৬০ নম্বরসহ মোট ২০০ নম্বর গণনা করা হয়।

ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত ও জীববিজ্ঞান বিষয়গুলোর উপর এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের এক ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.pstu.ac.bd) পাওয়া যাবে।

বিদেশে উচ্চশিক্ষার সুযোগ:
দেশ ছাড়াও কৃষিবিদদের বিদেশে রয়েছে উচ্চশিক্ষার বিশাল সুযোগ। প্রতিবছর অনেক শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, জাপান, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ কোরিয়া, মালয়েশিয়া ও ভারতে উচ্চশিক্ষা নিতে যান।