সকল মানুষের জন্য একমাত্র মডেল হযরত মোহাম্মদ (স:)

প্রকাশ:| সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ০৯:১৭ অপরাহ্ণ

তাফসির মাহফিল
হযরত মোহাম্মদ মোস্তফা (স:) এর আদর্শে জীবন গড়া, সকল মুসলমানের ইমানি দায়িত্ব।

লিটন কুতুবী, কুতুবদিয়া।

সর্বকালের সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব হযরত মোহাম্মদ (স:) শুধু মুসলিম ওম্মাহ’র মডেল নন, তিনি সারা পৃথিবীর সকল মানুষের জন্য একমাত্র মডেল। যাঁর সাথে পৃথিবীতে আর কারো তুলনা হয়না। তাঁর জীবনীকে ধারণ করে নিজেরদের জীবনকে সাজাতে পারলে ইহকাল ও পরকালের মুক্তি নিশ্চিত। ইসলাম শান্তির ধর্ম, সঠিক পথে থাকতে পরিপূর্ণভাবে ইসলাম মেনে চলতে হবে। ইসলামে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে কুরাআন-হাদিসের আলোকে জীবনকে সাজোতে হবে। পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য কুরআন ও হাদিসের কোন বিকল্প নেই। কক্সবাজারের কুতুবদিয়া দ্বীপের বড়ঘোপ বাজার ব্যবসায়ী সমাজ কল্যাণ ও একতা সংঘের উদ্যোগে ৬ষ্ঠবারের মত আয়োজিত ৩দিন ব্যাপি তাপসীরুল কুরআন মাহফিলে মানব জীবনের মুক্তির দিশা ও হেদায়তের পথে চলতে ইসলামের তথা শান্তির ধর্ম’র ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ করে লাখো মুসল্লির মাঝে বয়ান করেন মাহফিলে আমন্ত্রিত ওলামায়ে-কেরামবৃন্দ। আলহাজ্ব আবুল কাশেম সওদাগরের সভাপতিত্বে মাহফিলের শেষ দিনে প্রধান বক্তা হিসেবে বয়ান করেন মুফ্তি ড.সাইয়্যেদ মুহাম্মদ এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী ওয়া সিদ্দিকী জৌনপুরী এবং বিশেষ বক্তা ছিলেন মাওলানা মুহাম্মদ ইসমাঈল কুতুবী। এসময় প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কুতুবদিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি ও বড়ঘোপ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মুহাম্মদ আওরেঙ্গজেব মাতবর। ৩দিন ব্যাপি অনুষ্ঠিত ৩দিন ব্যাপি তাপসীরুল কুরআন মাহফিলের ১ম দিন অতিবাহীত হয় উপজেলার ২৬টি হেফজ মাদ্রাসার ৭২ জন হেফজ শিক্ষার্থীর সুরালো কন্ঠের হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা ও ক্বিরাত মাহফিলের মধ্য দিয়ে। আলহাজ্ব জাকরিয়া সওদাগরের সভাপতিত্বে অতিবাহিত মাহফিলের ১ম দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুতুবদিয়া মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মাওলানা মুহাম্মদ আলীমুল হক চৌধুরী আল-আযাহারী। মাহফিলের ২য় দিনে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে আলোচনা করেন চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদ্রাসার হাদিস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হাফেজ মাওলানা শাহ আলম এবং বিশেষ বক্তা হিসেবে বয়ান করেন বড়ঘোপ ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা মুহাম্মদ আবুল কালাম আযাদ। এদিন প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত ছিলেন কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী। মাহফিলের শেষ দিনে প্রায় ভোর রাত পর্যন্ত বয়ান করেন প্রধান বক্তা মুফ্তি ড.সাইয়্যেদ মুহাম্মদ এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী ওয়া সিদ্দিকী জৌনপুরী। সর্বশেষ বাংলাদেশের উত্তরোত্তর উন্নতি ও দেশের মানুষের সুখ-সমৃদ্ধি কামনা করে, ইসলামকে আরো বেশি জানার তাগিদ দিয়ে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে জীবনে প্রতিটি কদমে জেনে, না জেনে করে ফেলা ছোট-বড় সকল গুনাহ ক্ষমা চেয়ে এক আবেগ আপ্লোত মোনাজাতের মাধমে মাহফিলের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।


আরোও সংবাদ