কুতুবদিয়ায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ সভা

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৭ জুন , ২০১৮ সময় ০৯:৩২ অপরাহ্ণ

লিটন কুতুবী,কুতুবদিয়া:
কয়েকদিন পরেই ঈদুল ফিতর। কুতুবদিয়ার প্রতিটি বাজারেই জমে উঠেছে ঈদের বাজার। এরই মধ্যে কুতুবদিয়ায় আগমন ঘটছে ঘরমুখো মানুষের। সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসন জনসচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আয়োজন করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ বিষয়ক সেমিনার। গতকাল বৃহষ্পতিবার (৭জুন) সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে সেমিনারের আয়োজন করেন কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসন। সেমিনারে বক্তারা বলেন, উপজেলার কাঁচা বাজার,মাছের বাজার,ফলের বাজার,কাপড়ের দোকান, ঔষুধের ফার্মেসী,যাতায়াত ও ঘাট পারাপারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাধারণ ভোক্তাদের হয়রানি করছে এক ধরনের অসাধু ব্যবসায়ীরা। ভোক্তাগণ তাদের অধিকার সম্পর্কে জানে না বলেই প্রায়ই ক্ষেত্রে তাদেরকে ঠকতে হয়। তাই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন সম্পর্কে জানা একান্ত আবশ্যক বলে মনে করেন বক্তারা। বিশেষ করে মাছ বাজারে সারের পানিতে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চুবিয়ে বিক্রি করা,বিভিন্ন মৌসুমী ফলে ফরমালিনসহ বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক পদার্থ মিশ্রিত করে বিক্রি আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। তাছাড়া ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনমতে প্রত্যেকটি বাজারে মূল্য তালিকা প্রকাশ্য স্থানে দৃশ্যমান থাকা আবশ্যক হলেও উপজেলার কোন বাজারেই তা চোখে পড়েনি বলে জানানো সভায়। বিষয়টি যাছাই করার জন্য বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করার কথা জানান সভার সভাপতি ইউএনও ।
ঈদকে সামনে রেখে কুতুবদিয়া চ্যানেলে যাত্রী পারাপার ঘাটে যাতে কোনরূপ সমস্যা পড়তে না হয় সেই লক্ষ্যে ঘাট ইজারাদারকে একটি নীতিমাল ধরে দিয়েছে। সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে যাত্রীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে সকাল ৭ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত বড়ঘোপ থেকে মগনামা এবং সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত মগনামা থেকে বড়ঘোপ যাতায়ত করতে পারবেন। এক্ষেত্রে ভাড়া নির্ধারন করা হয়েছে আগের মতই ড্যানিস বোট প্রতিজন ২০টাকা,স্পীড বোট প্রতিজন ৭০টাকা। কিন্তু কোন যাত্রী রিজার্ভ যেতে চাইলে সে ক্ষেত্রে ডেনিস বোট প্রতিজন ৪০টাকা , একাই রিজার্ভ নিলে (সম্পূর্ণ)-৮০০ টাকা,স্পীড বোট রিজার্ভ-৬০০ টাকা। একইভাবে দরবার ঘাট থেকে মগনামা সকাল ৭টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মগনামা থেকে দরবার ঘাট যাতায়ত করতে পারবেন। এই ঘাটেও ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে আগের মতই, ড্যানিস বোট প্রতিজন ২০টাকা,স্পীড বোট প্রতিজন ৮০টাকা। কিন্তু কোন যাত্রী রিজার্ভ যেতে চাইলে সে ক্ষেত্রে ডেনিস বোট প্রতিজন ৪০টাকা সম্পূর্ণ-৮০০ টাকা,স্পীড বোট রিজার্ভ-৮০০ টাকা। পাশাপাশি অতিরিক্ত যাত্রী বহন করতে নিষেধ করা হয়েছে । প্রতিটি যাত্রীবাহি বোটে লাইফ জ্যাকেট পর্যাপ্ত রাখার নিদের্শ দেন। এক্ষেতে যাত্রীদের সহযোগিতাও প্রয়োজন বলে মনে করেন বক্তারা। সেমিনারে বক্তাদের দাবীর মুখে চলতি ৭জুন (বৃহষ্পতিবার) রাত ৮টা থেকে ড্যানিস বোট চালু করার ঘোষণা দেন ইউএনও সুজন চৌধুরী। সেই সাথে আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রিক্সা চালক থেকে শুরু করে গাড়ির মালিক,ড্রাইভার,হেলাফার কেউই যেন যাত্রীদের হয়রানী না করেন সে দিকে লক্ষ্য রাখতে সকলের প্রতি অনুরোধসহ সকল শ্রেণি ও পেশাজীবীর মানুষকে ঈদুল ফিতরের অগ্রীম শুভেচ্ছা জানান এ কর্মকর্তা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুজন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন, কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউস, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রজব আলী, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ওমর ফারুক, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) সুভ্রাত দাশ,রেঞ্জ কর্মকর্তা অসীত কুমার, উত্তর ধুরুং ্ইউপির চেয়ারম্যান আ.স.ম শাহরিয়ার চৌধুরী, আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা ধনচরন, কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস.কে. লিটন কুতুবী ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক নজরুল ইসলাম,বড়ঘোপ ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল কালাম, মহিলা বিষয়ক দপ্তরের প্রশিক্ষক জাকির হোছাইন, উপজেলা কৃষি অফিসের গিয়াস উদ্দীন, ইসলামী ফাউন্ডেশন কুতুবদিয়ার মডেল কেয়ার টেকার শামশুল আলম,বড়ঘোপ-মগনামা ঘাট ইজারাদার আবুল কালমসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।