কুতুবদিয়ায় ভূমি সেবা সপ্তাহ পালিত

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৫ জুলাই , ২০১৮ সময় ০৯:২৮ অপরাহ্ণ

লিটন কুতুবী,কুতুবদিয়া:
৫ জুলাই (বৃহষ্পতিবার) কুতুবদিয়া অফিসার্স ক্লাবে ভূমি সপ্তাহ উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইউএনও সুজন চৌধুরী বলেন, ভূমি মানুষের জীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। থানা-আদালতে বিচারাধীন মামলার প্রায় সিংহভাগই ভূমি সংক্রান্ত বলা যায়। এসব সমস্যা থেকে উত্তোরণের জন্য ভূমি ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন দরকার বলে মনে করেন তিনি। দীর্ঘ জ্ঞানগর্ভ আলোচনায় ইউএনও আরো বলেন, ভূমি সংক্রান্ত সমস্যা দ্রুত সমাধানের জন্য সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ও ভূমি অফিস একই মন্ত্রণালয়ের অধীনে হলে গ্রাহকরা আরো সহজেই সেবা পাবে। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, কুতুবদিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদ্মাসন সিংহ, মৎস্য কর্মকর্তা নাসিম আল মাহমুদ, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আমিরুল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রজব আলী প্রমূখ।
সভায় বক্তারা বলেন, ভূমি ব্যবস্থাকে ডিজিটাইলাইজেশন করা সময়ের দাবী। তাছাড়া গ্রাহক হয়রানী দূর করাও একান্ত প্রয়োজন বলে মনে করেন তারা। তারা বলেন ঠেকায় না পড়লেও কেউ ভূমি অফিসের দারস্থ হয় না। আর হলেও সরাসরি না এসে দালালের মাধ্যমে ভূমি অফিসের কাজগুলো করাতে চায় গ্রহকেরা। এ পদ্ধতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এবং মানুষকে আরো সচেতন হতে হবে। বর্তমান এসিল্যান্ড পদ্মাসন সিংহ যোগদানের পর থেকেই গ্রাহকেরা স্বল্প সময়ের মধ্যে সেবা পাওয়ার কথা জানানো হয় সভায়। প্রায় নামজারি জমা খারিজ আবেদনের ক্ষেত্রে মাঠ পর্যায়ে স্ব-শরীরে উপস্থিত হওয়ার কথাও বলেন এ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, সমস্যাগুলো নিজের মনে করেই সুষ্ঠ সমাধান করে সেবা দেওয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদ্মাসন সিংহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা নন্দ দুলাল সাহা, রেঞ্জ কর্মকর্তা অসিত কুমার রায়, কুতুবদিয়া মহিলা কলেজের প্রভাষক নজরুল ইসলাম, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন, কুতুবদিয়া হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক জহিরুল ইসলাম,যুব উন্নয়নের মেজবাহ উদ্দিন, কানুনগো সাজিদুল ইসলাম, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সমন্বয়ক সুপানন্দ বড়ুয়াসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা,কর্মচারী,সাংবাদিক,শিক্ষক ও ভূমি সংক্রান্ত সেবা গ্রহিতা।
৩ জুলাই থেকে শুরু হওয়া ভূমি সেবা সপ্তাহ চলবে ৮ জুলাই পর্যন্ত। এ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে উপজেলা ভূমি অফিস। এদিন সেবা গ্রহিতাদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে সৃজিত নামজারি খতিয়ান এবং ভূমিহীনদের নিকট থেকে নেয়া হয়েছে কৃষি খাসজমি বন্দোবস্তের আবেদন।