কাপ্তাই হ্রদে ঝড়ের কবলে নৌকাডুবিতে নিখোঁজ প্রবাসী নবদম্পতির হদিস মেলেনি

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২০ মার্চ , ২০১৪ সময় ১০:২৮ অপরাহ্ণ

স্ত্রীকে নিয়ে আর যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাওয়া হল না প্রবাসী আলাউদ্দিনের। কাপ্তাই হ্রদে ঝড়ের কবলে নৌকাডুবিতে নিখোঁজ হয়েছে প্রবাসী এ নবদম্পতির।

২৪ ঘণ্টা পরেও হদিস মেলেনি আলাউদ্দিন ও লিমা দম্পতির। কাপ্তাই নৌ বাহিনী ও রাঙামাটি ফায়ার সাভির্সের ২০ জনের যৌথ ডুবুরিদল হ্রদের আদার পাহাড় এলাকায় উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

গতকাল বুধবার বিকেলে প্রবল ঝড়ো হাওয়ার কবলে পড়ে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ডুবে গেলে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আলাউদ্দিন পাঠোয়ারী ও তার স্ত্রী আইরিন সুলতানা লিমা হ্রদের পানিতে তলিয়ে যায়।

পারিবারিক সূত্র জানায়, কুমিল্লার বড়ুরা এলাকার পয়লাগাছার যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আলাউদ্দিন পাঠোয়ারীর সঙ্গে বছর দেড়েক আগে বিয়ে হয় আইরিন সুলতানা লিমার। এর আগে অধুনালুপ্ত বিডিআরে চাকরি করতেন আলাউদ্দিন। ডিভি লটারিতে জিতে তিনি পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। কয়েকদিন আগে দেশে আসেন স্ত্রী লিমাকে সেখানে নিয়ে যাওয়ার জন্য।

আগামী ৪ এপ্রিল স্বামীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার কথা ছিল লিমার। তিনি থাকতেন চট্টগ্রামের পূর্ব মাদারবাদী বাবার বাসায়। বুধবার লিমাকে নিয়ে স্বামী আলাউদ্দিন রাঙামাটি ভ্রমণে গিয়ে কাপ্তাই হ্রদে হঠাৎ ঝড়ো হওয়ার কবলে পড়েন। নৌকা ডুবির খবর পেয়ে আত্মীয় স্বজনরা রাঙামাটি এসে কাপ্তাই হ্রদের ধারে এখন গগণবিদারী কান্নায় ভারি করে তুলছেন বাতাস।

নৌকা ডুবির ঘটনায় বেঁচে গেছেন নৌকাচালক বিটন চাকমা। রাঙামাটি সদর হাসপাতালে তিনি চিকিৎসাধীন। এর আগে গভীর রাতে উদ্ধারকর্মীরা দুর্ঘটনা কবলিত নৌকাটি উদ্ধার করে। নৌকায় পাওয়া যায় ওই দম্পতির মোবাইল সেট ও ভ্যানিটি ব্যাগ। এসব সূত্রে তাদের পরিচয় নিশ্চিত হয়।

উদ্ধার কাজে নেতৃত্বদানকারী নৌবাহিনীর কর্মকর্তা জুলহাস ফয়সাল জানান, বুধবার সন্ধ্যা থেকে অনুসন্ধানে যোগ দেয় কাপ্তাই শহীদ মোয়াজ্জেম ঘাঁটির নৌবাহিনীর ডুবুরিরা। প্রতিকূল আবহাওয়া ও হ্রদের বিশালতা ও তলদেশের পানিতে উঁচুনিচু টিলাসহ কর্দমাক্ত মাটির উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে। এরপরেও নিখোঁজ দম্পতিকে না পাওয়া পর্যন্ত অনুসন্ধান চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে নৌবাহিনীর ডুবুরিরা।

ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এ ঘটনার ১৫ ঘণ্টা বিলম্বে বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টায় নৌবাহিনীর ডুবুরিদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে অসন্তোষও দেখা দিয়েছে।

রাঙামাটির অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক( রাজস্ব) ড. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, খুবই গুরুত্ব দিয়ে নিখোঁজদের অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

এদিকে বুধবার নৌডুবির ঘটনার পর পর্যটনের নৌযান ঘাটের ইজারাদার সকল প্রকার নৌ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে।


আরোও সংবাদ