‘কষ্ট হলেও ঈদে বাড়ি ফিরতেই হবে’-এই কথা সবার কণ্ঠে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ০৪:০১ অপরাহ্ণ

র্কাভাড ভ্যানে যাত্রিপ্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ করতে শহর ছেড়ে গ্রামের পথে ছুটছে মানুষ; বাস-ট্রেন-লঞ্চে জায়গা না পেয়ে ট্রাক-কভার্ড ভ্যানে উঠেও যাত্রা করছেন কেউ কেউ। ঈদের আগে শেষ কর্মদিবস হওয়ায় বুধবার বিকালে বন্দরনগরীর বাস টার্মিনাল ও রেল স্টেশনগুলোতে ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে।

বাস-ট্রেনের ভিতরে/ছাদে জায়গা না কভার্ড ভ্যানে চড়ে বসেন অনেকে। বিকালে নগরীর কদমতলী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন রুটের বাসে কোথাও কোনো জায়গা নেই। যারা আগে থেকে টিকেট নিয়েছেন তারা বসেছেন ভিতরে। আর যারা আগে টিকিট নেন নি তাদের স্থান হয়েছে বাসের ছাদে।

কোথাও যাদের কোনো জায়গা হয়নি তাদের শেষ অবলম্বন ওঠে কভার্ড ভ্যান। বাসস্ট্যান্ডের পাশেই শোনা যায় ‘বারৈয়াহাট ১০০ টাকা’ ডাক। এগিয়ে গিয়ে দেখা যায়, কোনো বাস নয়, কভার্ড ভ্যানের এক চালক ও সহকারী যাত্রীদের ডাকছে। তা শুনেই যাত্রীরা হুমড়ি খেয়ে পড়লেন কভার্ড ভ্যানের দিকে। মুহূর্তেই ভরে যায় ভ্যানটি।

নারী, পুরুষ, শিশু অনেকেই উঠে পড়েন সেখানে। গন্তব্য মিরসরাইয়ের বারৈয়াহাট। সালাউদ্দিন নামে এক যাত্রী বলেন, তার বাড়ি ফেনীর দাগনভূঁইয়া। নগরীতে বৈদ্যুতিক মিস্ত্রী হিসেবে কাজ করেন। “ট্রেন বাসের টিকিট না পেয়ে বাধ্য হয়ে কাভার্ড ভ্যানে বাড়ি ফিরছি।” দেখা যায় কভার্ড ভ্যানের অধিকাংশ যাত্রীই ফেনীর বাসিন্দা। তারা জানায়, বারৈয়াহাট নেমে সেখান থেকে আবার ফেনীর গাড়ি ধরবেন। ‘কষ্ট হলেও ঈদে বাড়ি ফিরতেই হবে’-এই কথা সবার কণ্ঠে।

নিউজচিটাগাং২৪/এসএ