কক্সবাজারে নিখোঁজ ৬ নৌকার সন্ধান এখনো মিলেনি

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট , ২০১৬ সময় ০৮:২০ অপরাহ্ণ

মাঝি মাল্লাসেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও প্রতিনিধি, বঙ্গোপসাগরে সাম্প্রতিক দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কবলে পড়ে কক্সবাজার উপকুলের ৬ টি মাছ ধরা নৌকা শতাধিক জেলে নিয়ে নিখোঁজ হয়ে পড়েছে। এসব নৌকাগুলোর মধ্যে ৩ টি ভারতীয় উপকুলে রয়েছে বলে জানা গেছে। অপর ৩ টির মধ্যে একটি সাগরে ডুবে গেছে। ডুবে যাওয়া নৌকাটি গত রবিবার সোনাদিয়া দ্বীপ সন্নিহিত সাগর বক্ষ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও কোন খোঁজ মিলছে না ৩০ জন জেলে সহ অপর ২ টি মাছধরা নৌকার।
সাগরে টানা গত দু’সপ্তাহ ধরে অব্যাহত ছিল দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া। গতকাল সোমবার সকাল থেকে আবহাওয়া স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। সেই সাথে থেমেছে কক্সবাজার উপকুলে টানা দুই সপ্তাহের বর্ষণও। এমন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়াকে উপেক্ষা করেও উপকুলের জেলেরা পাড়ি জমায় মাছ ধরার জন্য সাগরে। সাগরে মাছ ধরতে গিয়েই ঝড়ের কবলে পড়ে কোন কোন নৌকা ভেসে গেছে ভারতের উপকুলে আবার অনেক নৌকার খোঁজও মিলছে না। এভাবে একটির নিশ্চিত ডুবে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।
কক্সবাজার মাছধরা নৌকা মালিক সমিতির যুগ্ন সম্পাদক দেলোয়ার হোছাইন জানান, কক্সবাজারের বাঁকখালী নদীর ৬ নম্বর ঘাট এলাকার বাসিন্দা কাইয়ুম সওদাগরের এফবি ফরহাদ নামের একটি নৌকা, এবং পৌরসভার এসএম পাড়ার বাসিন্দা সিরাজ মিয়ার এফবি আল্লাহর দান সাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে নিখোঁজ হয়ে পড়ে।
পরে খোঁজাখুঁজি করতে গিয়ে জানা গেছে, নৌকা দু’টির মেশিন বিকল হয়ে ভাসতে ভাসতে ভারত উপকুলে গিয়ে পৌঁছেছে। এই নৌকা দু’টিতে ৪০ জন জেলে রয়েছে। অপরদিকে কুতুবদিয়া দ্বীপের বড়ঘোপের বাসিন্দা ছাবের আহমদ কোম্পানীর মালিকানাধীন এফবি নাহিদ নামের একটি নৌকাও ১৬ জেলে নিয়ে ভারত উপকুলে আশ্রয় নিয়েছে।
এদিকে মহশেখালী দ্বীপের কুতুজোমের বাসিন্দা নুরুল কবির গতকাল সোমবার মহেশখালী থানায় একটি জিডি এন্ট্রি করেছে তার মালিকানাধীন এফবি আশরাফ-৪ নৌকাটি নিখোঁজের বিষয়ে। এই নৌকাটি ১৬ জন মাঝি-মাল্লা নিয়ে গত ১০ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজ জেলেরা সবাই মহেশখালী দ্বীপের বাসিন্দা। এসব নিখোঁজ জেলেদের ঘরে ঘরে বিরাজ করছে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা।
অপরদিকে কক্সবাজার সদরের খুরুশকুল ইউনিয়নের কাউয়ারপাড়ার বাসিন্দা আবু তাহেরের মালিকানাধীন একটি ডুবে যাওয়া নৌকা গত রবিবার উদ্ধার করা হয়। সেই নৌকার ১৪ মাঝি-মাল্লার মধ্যে ৭ জন জীবিত ফিরলেও প্রাণহানি ঘটে ৭ জনের। তন্মধ্যে রবিবার সন্ধ্যায় ৬ জনের লাশও উদ্ধার করা হয়। একজনের খোঁজ এখনো মিলেনি।