ওয়ার্ডকে ঢেলে সাজানোর ক্ষেত্রে ত্যাগীদের মূল্যায়ন হবে

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২১ মার্চ , ২০১৭ সময় ১০:১৮ অপরাহ্ণ

আন্দোলন সংগ্রামে ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়নের মাধ্যমে দলের প্রতিটি ওয়ার্ডকে ঢেলে সাজানোর ঘোষণা দিয়েছেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা.শাহাদাত হোসেন।

ঐক্যবদ্ধভাবে আগামী দিনের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে দলীয় নেতা কর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে ভারতের সঙ্গে প্রতিরক্ষা চুক্তির নামে নতুন করে গোলামী চুক্তির পায়তারা করছে সরকার।

মঙ্গলবার বিকেলে ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ড বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শাহাদাত হোসেন।

প্রধান বিচারপতি বক্তব্যের উদাহরণ দিয়ে নগর বিএনপির সভাপতি বলেন, ‘সরকার দেশের বিচার বিভাগকে জিম্মি করে রেখেছে’ প্রধান বিচারপতির এই অভিযোগেই বুঝা যায় সরকার কতটা স্বৈরাচারী।

দেশে আইনের শাসন, জনগণের নিরাপত্তা, গণতন্ত্র ও বাক স্বাধীনতা নেই অভিযোগ করে তিনি বলেন, ফলে সরকারের ইচ্ছায় বিচার কার্যক্রম চলছে। ইয়াবা সম্রাট এমপি বদি তিন দিনের মাথায় জেল থেকে বের হয়ে যায় কিন্তু বিরোধী দলের হাজার হাজার নেতা-কর্মী কারাগারে নির্যাতিত হচ্ছে।

চট্টগ্রামের রাজস্ব নিয়ে চট্টগ্রামের উন্নয়ন সম্ভব মন্তব্য করে তিনি বলেন, অথচ চট্টগ্রামের সিংহভাগ রাজস্ব নিয়ে এখানকার উন্নয়ন না করে বিমাতাসূলভ আচরণ করছে।

সরকারই জঙ্গিবাদকে জিইয়ে রাখার চেষ্টা করছে অভিযোগ করে প্রধান বক্তার বক্তব্যে নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, সরকার জঙ্গিবাদের মুলোতপাটন না করে কৌশলে লালন করছে।

১৯ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সম্মেলন কমিটির নির্বাচন কমিশনার কাউন্সিলর ইয়াছিন চৌধুরী আছুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বাকলিয়া থানা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, নগর বিএনপি নেতা ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, কামরুল ইসলাম, ইব্রাহিম বাচ্ছু, আলী ইউসুফ, এস এম সেলিম, বিএনপি নেতা ইছহাক চৌধুর আলিম, আফতাবুর রহমান শাহীন, এম আই চৌধুরী মামুন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন ১৯ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হিসেবে হাজী নবাব খান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব চৌধুরী নাজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোহাম্মদ ইউনুছের নাম ঘোষণা করেন।


আরোও সংবাদ