এশিয়া কাপ ক্রিকেট: সন্ধ্যায় দেশ ছাড়বেন মাশরাফিরা

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ৯ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০১:২৭ অপরাহ্ণ

ওয়েস্ট ইন্ডিজে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দুর্দান্ত দু’টি সিরিজ কাটানোর পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সামনে এখন চ্যালেঞ্জ এশিয়া কাপের। বহুজাতিক টুর্নামেন্টের মতো এশিয়া কাপ ক্রিকেটই বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে আকর্ষণীয় ও সম্ভাবনাময়। কেননা এশিয়া কাপের গত তিন আসরের দুবারই যে ফাইনাল খেলেছে টাইগাররা।

আর এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য স্থির করে এশিয়া কাপে অংশ নেবে বাংলাদেশ দল। সংযুক্ত আরব আমিরাতে হতে যাওয়া এবারের আসরে অংশ নিতে রোববার সন্ধ্যায় দেশ ছাড়বে মাশরাফি বাহিনী। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় এমিরেটস এয়ারলাইনসের সরাসরি ফ্লাইটে আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে রওনা এশিয়া কাপের জন্য বাংলাদেশ স্কোয়াড।

তবে এশিয়া কাপের জন্য শেষ মুহূর্তে সংযুক্তি মুমিনুল হকসহ মোট ১৬ জনের স্কোয়াড ঘোষণা করা হলেও রোববার দেশ ছাড়বেন ১৫ জন খেলোয়াড়। পরিবারের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা সাকিব আল হাসান সরাসরি সেখান থেকেই দলের সাথে যোগ দেবেন। এছাড়া সিপিএল খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ফিরেছেন দেশে। তিনিও দলের সাথেই যাবেন আরব আমিরাত।

তবে শুধু সাকিব আল হাসানকে ছাড়াই নয়, মাশরাফিরা দেশ ছাড়বেন দলের ম্যানেজার ও প্রধান নির্বাচককে ছাড়াই। একদম শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপের ম্যানেজারের দায়িত্ব পাওয়া খালেদ মাহমুদ সুজন ও দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু দলের সাথে যেতে পারবেন না ভিসা জটিলতার কারনে।

শুরুতে খালেদ মাহমুদ সুজনের ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাওয়ার কথা চূড়ান্ত না হওয়ায় তার পেপারওয়ার্ক করা যায়নি সময়মতো। যার ফলে মেলেনি ভিসা। আর নান্নুর ব্যক্তিগত ঝামেলার কারণে বিলম্বিত হচ্ছে ভিসা পেতে। তারা এখনো জানেন না ঠিক কবে দলের সাথে যোগ দিতে পারবেন তারা। তবে এশিয়া কাপ শুরুর আগেই যে তারা টুর্নামেন্টের ভেন্যুতে উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করছেন প্রধান নির্বাচক নান্নু।

এ ব্যাপারে জাগো নিউজের পক্ষ থেকে খালেদ মাহমুদ সুজনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে মুঠোফোনে পাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে প্রতিবেদককে হতাশ করেননি প্রধান নির্বাচক নান্নু। সংক্ষিপ্ত সংলাপে তিনি বলেন, ‘এখনো বলতে পারছি না কবে যাবো আমরা। তবে আশা করছি দুই-এক দিনের মধ্যেই ভিসা সম্পর্কিত জটিলতা দূর হয়ে যাবে এবং টুর্নামেন্টের আগেই আমরা দলের সাথে যোগ দিতে পারবো।’

আগের অন্যান্য বারের চেয়ে ভিন্ন ফরম্যাটে হবে এবারের এশিয়া কাপ। যেখানে অংশগ্রহণকারী ছয় দল প্রথম পর্বে খেলবে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে। সেখান থেকে দুই গ্রুপের শীর্ষ দুই দলকে নিয়ে সুপার ফোর বা মূল পর্ব।

প্রথম পর্বে ‘বি’ গ্রুপে রয়েছ বাংলাদেশ। গ্রুপে টাইগারদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচেই ১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলবে মাশরাফি বাহিনী। পরে ২০ সেপ্টেম্বর গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলবেন মাশরাফি-সাকিবরা।