এশিয়া কাপ আয়োজনে আগ্রহ নেই বাংলাদেশের!

প্রকাশ:| রবিবার, ১৪ জুন , ২০১৫ সময় ০৯:০৯ অপরাহ্ণ

০১২ এশিয়া কাপের স্মৃতি কি কখনো ভুলতে পারবে এ দেশের ক্রিকেট সমর্থকেরা। মাত্র ২ রানের জন্য ফাইনালে সেবার পাকিস্তানের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ। যে টুর্নামেন্টে ভারত-শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল তারা। গত এশিয়া কাপের স্মৃতিটা অবশ্য একটু তিক্ত। তবে টানা দুটো এশিয়া কাপের সফল আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ। সেই বাংলাদেশই নাকি এবার আগ্রহী নয় এশিয়া কাপ আয়োজনে!

দুই বছর বিরতিতে আগামী বছর আবার বসবে এশিয়া কাপের আসর। এবার থেকে বদলে যাচ্ছে টুর্নামেন্টের ফরম্যাটের ধরন। কখনো ওয়ানডে ফরম্যাটে হবে, কখনো টি-টোয়েন্টি। সেটি নির্ভর করবে, পরবর্তী আইসিসি টুর্নামেন্টটি ওয়ানডে বিশ্বকাপ নাকি টি-টোয়েন্টির। এতে করে এশিয়ার দলগুলো ভালো করে বিশ্বকাপের প্রস্তুতিও নিতে পারবে।

২০১৬ সালে যেহেতু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, এবারের এশিয়া কাপ হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। মার্চে ভারতে বসতে যাচ্ছে এই আসর। এর ঠিক আগে হবে এবারের এশিয়া কাপ। ভেন্যু এখনো ঠিক হয়নি। তবে ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের খবর​, এবারের এশিয়া কাপ আয়োজনে এশিয়ার চার টেস্ট খেলুড়ে দেশের কেউই আগ্রহী নয়। ফলে সেটি আয়োজিত হতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।
বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ছাড়াও এশিয়ার দুটো সহযোগী দেশ খেলবে এই টুর্নামেন্টে। কিন্তু প্রথম চারটি দলের কেউ টুর্নামেন্টের আয়োজনের ভার নিতে চাইছে না বলে দাবি করেছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের একটি বিশ্বস্ত সূত্র, ‘ভার​ত-শ্রীলঙ্কা তো বটেই, এশিয়ার কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশই এশিয়া কাপ আয়োজনে আগ্রহ দেখায়নি। তাই সদস্যরা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত বিকল্প আয়োজক হতে পারে। ভেন্যুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে আগামী মাসে।’

২০১১ বিশ্বকাপের পর তিনটি বড় আসরের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ। ২০১২ এশিয়া কাপ। ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত হয়েছে রীতিমতো ক্রিকেট উৎ​সব। এশিয়া কাপ শেষ হতে না হতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সফল আয়োজনের পাশাপাশি এ দেশের মানুষদের ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসাও প্রশংসিত হয়েছে। কিন্তু তবুও বাংলাদেশও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের আগামী এশিয়া কাপও আয়োজন করতে রাজি হলো না! এটা তো বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে বাংলাদেশের কাজেই আসত।
খবরটি সঠিক কি না, তা নিশ্চিত করতে কথা বলার জন্য বিসিবির প্রধান নির্বাহীসহ কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ফোনে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।