এরশাদের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলা শাসনতান্ত্রিক পদ্ধতি গতিশীলতার অর্জন করেছিল

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২১ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ১১:৫৭ অপরাহ্ণ

পাহাড়তলী জাতীয় পার্টির সভায় মাহজাবীন এমপি
এরশাদের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলা শাসনতান্ত্রিক পদ্ধতি গতিশীলতার অর্জন করেছিলসকাল ১১ টায় ১নং দক্ষিণ পাহাড়তলী ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির উদ্যোগে আয়োজিত এক কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যানও চট্টগ্রাম মহানগর আহ্বায়ক জননেত্রী মাহজাবীন মোরশেদ এমপি বলেছেন স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলার ইতিহাসে একমাত্র জাতীয় পার্টির শাসনামল সোনালী অধ্যায় হিসেবে বিবেচিত হয়েছে দেশে-বিদেশে।

এসময় বাংলার শ্রমজীবি মেহনতী, পেশাজীবী রাজনৈতিক অস্থিরতা দুর্নীতি ছিল না। এরশাদ ব্রিটিশ উপনৈবেশিক শাসনব্যবস্থার পরিবর্তে ২০০ বছরের মহকুমা ভেঙ্গে ৬৪টি জেলা ৪৭২ উপজেলা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন একমাত্র বাংলার উন্নয়ন সুষম ও জনতার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে। জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামলে চট্টগ্রামের উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়েছিল। তখন চট্টগ্রাম পৌর কর্পোরেশনকে সিটি কর্পোরেশন, কর্নফুলী ২য় সেতু, ইউরিয়া সার কারখানা, চট্টগ্রাম নতুন রেল ষ্টেশন, বহদ্দার হাট বাস টার্মিনাল, শিপিং কর্পোরেশনের প্রধান কার্যালয়, চা বোর্ডের প্রধান কার্যালয় চট্টগ্রামে স্থাপন ও চট্টগ্রামের অবকাঠামো উন্নয়নে ২ শতাধিক ছোট বড় ব্রীজ, শত শত কিলোমিটার কাঁচা পাকা রাস্তা নির্মাণ মসজিদ মন্দির গির্জা, স্কুল কলেজ নির্মাণ করা হয়েছিল। তাই বাংলার মানুষ যোগ্য ও দক্ষ প্রশাসক বাংলার স্বাধীনতা পরবর্তী ইতিহাসের মহান সংস্কারক পল্লীবন্ধু এরশাদকে ক্ষমতা দেখতে চায়।

নগর জাপা যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব এম.আলী আজগর চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও নগর যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুল ইসলাম চৌধুরীর পরিচালনায় ও.আর.নিজাম আবাসিকস্থ সংসদ সদস্যের বাসভবনে আয়োজিত সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন নগর জাপা সদস্য সচিব আলহাজ্ব এয়াকুব হোসেন, বিশেষ অতিথি ছিলেন নগর জাপা যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব কামাল উদ্দিন তালুকদার। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নগর জাপা নেতা জসিম উদ্দিন, রেজাউল করিম রেজা, নুরুল আজিজ সওদাগর, মোঃ শওকতুল ইসলাম, মোঃ রিজুয়ান কোম্পানী, দিদারুল আলম কোম্পানী, মোঃ রফিক, মোঃ নুরুল আলম রুবেল, আলহাজ্ব আব্দুল হান্নান, মোঃ হানিফ, মোঃ বেলাল, নুর মোহাম্মদ, ফরিদুল আলম, আবুল কাশেম সওদাগর, মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ রমজান, আব্দুল মালেক, আলহাজ্ব বশির উদ্দিন প্রমুখ।


আরোও সংবাদ