এমপি ক্যাপ্টেন মজিবুর জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে জিডি করেছেন

প্রকাশ:| রবিবার, ১৬ আগস্ট , ২০১৫ সময় ১১:৫৫ অপরাহ্ণ

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির।

রোববার বিকেলে গৌরীপুর থানায় এ জিডি করা হয়।

এমপি ক্যাপ্টেন মজিবুরএমপি ক্যাপ্টেন মজিবুরএমপির জিডি করার বিষয়টি নিশ্চিত করে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী শেখ বলেন, ‘বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’

জিডিতে এমপি উল্লেখ করেন, বিগত সরকারের আমলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব প্রদান করলে আমি তা সফলভাবে পালন করি। আমি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি শেখ মুজিবুর রহমান ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভক্ত। আমি স্বাধীনতা প্রেমিক ও একজন মুক্তিযোদ্ধা। তাই বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতা ও স্থানীয় কিছু সংখ্যক প্রয়াত নেতৃবৃন্দের মোট ১৫টি ভাস্কর্য গৌরীপুর পৌর শহরের জোড়া দিঘীর পাড়ে নির্মাণ করি। আমি গৌরীপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে স্কুল-কলেজ, মাদরাসায় ১৪২টি শহীদ মিনার নির্মাণ করি।

এমপি মজিবুর রহমান ফকির আরো উল্লেখ করেন, গত ১৫ আগস্ট উপজেলার কলতাপাড়ায় ৪৭ ফুট দীর্ঘ বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের কাজ উদ্বোধন করি। এ কাজ শুরু করার পর থেকে উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও এলাকার কিছু সংখ্যক মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের ও দেশদ্রোহী ব্যক্তি, জামায়াত-বিএনপির এজেন্ট আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করছে। জঙ্গিরা নামে-বেনামে ও উড়ো চিঠির মাধ্যমে আমাকে খুন করার হুমকি দিচ্ছে।

জিডিতে এমপি আরো উল্লেখ করেন, আমার জীবনের হুমকি আসায় আমি গৌরীপুর পৌর শহরের কয়েকটি জায়গায় সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেছি। এসব ক্যামেরা স্থাপন করায় গৌরীপুরে মাদক ব্যবসা, ইভটিজিং, ছিনতাই, রাহাজানি বন্ধ রয়েছে। উপজেলার অফিস পাড়ায় সিসি ক্যামেরা স্থাপন করায় অফিসারদের সঠিক সময়ে অফিস করার প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে ও বিএনপির উপজেলা চেয়ারম্যান সন্ত্রাসীদের নিয়ে উপজেলা পরিষদ কক্ষে ঢুকতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ইদানিং গৌরীপুর উপজেলা কোয়ার্টারে বিভিন্ন জায়গায় চুরি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

এমপি আরো উল্লেখ করেন, আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা যারা সার্বক্ষণিক আমার সাথে আছেন তাদেরও জঙ্গিরা হত্যার হুমকি প্রদান করছে।