এবার সব হবে ইন্টারনেট ছাড়াই !

প্রকাশ:| সোমবার, ১৬ জুন , ২০১৪ সময় ১০:১৮ অপরাহ্ণ

ইন্টারনেটের স্বাধীনতা নিয়ে দুনিয়াজুড়ে চর্চা হচ্ছে। বিভিন্ন দেশের সরকার ইন্টারনেট পরিষেবায় নজরদারি চালাচ্ছে। এ নিয়ে সেই সব দেশের সরকারের সঙ্গে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ-বিক্ষোভ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে একটি নতুন প্রযুক্তির উদয় হচ্ছে। এই প্রযুক্তির মাধ্যমেই এবার কোনো রকম ইন্টারনেট ছাড়াই চলবে মোবাইল চ্যাট। বিনা ইন্টারনেটেই এখন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করা যাবে। যুগান্তকারী এই প্রযুক্তি শিগগির হাতের মুঠোর পেয়ে যাবেন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা।

এই নয়া প্রযুক্তির নাম ‘মেশ নেটওয়ার্ক’। এই নেটওয়ার্কের সুবিধা রয়েছে, যা দুনিয়ায় একটা বিপ্লব ঘটাতে চলেছে। ‘মেশ নেটওয়ার্ক’ প্রযুক্তির মাধ্যমে দুরসঞ্চার দুনিয়ার মানুষজন ইন্টারনেটে মুখ্য ধারায় জুড়ে যাবে। এর জন্য কোনো রকম ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন পড়বে না।

বাস্তবে দেখা গেছে, জঙ্গল ও প্রত্যন্ত এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক থাকে না। অনেক ক্ষেত্রে বিশেষ কিছু স্থানে মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্লক করে দেওয়া হয়। এই সময় চ্যাট এবং মেসেজ পাঠানো সমস্য হয়ে যায়। এবার ‘মেশ নেটওয়ার্ক’ এই সমস্যা সহজেই সমাধান করতে চলেছে।

মেশ নেটওয়ার্ক আসলে কী?

বাস্তবে দেখা যায়, আন্ডারগ্রাউন্ড মেট্রো রেলপথে মোবাইলের সিগন্যাল হারিয়ে যায়। মেশ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ইন্টারনেটের মূলধারার সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করা হয়ে থাকে। এই মেশ নেটওয়ার্কের ক্ষমতাও অনেকটা বেশি। সহজ কথা মেশ নেটওয়ার্ক অনেকটা সাইকেলের চাকার মতো। যার প্রত্যেকটি স্পক একটি কেন্দ্রীয় বিন্দুতে গিয়ে যুক্ত। মেশ নেটওয়ার্কের ওই কেন্দ্রীয় বিন্দু মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক, ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক এবং কমপিউটারের সরবরাহ করে। যদি আপনার ফোনে মোবাইলে সিগন্যাল না থাকে, তবে আপনি মেশ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অন্য মোবাইলে মেসেজ করতে পারবেন।

মেশ নেটওয়ার্কের নিজস্ব কোনও সেন্ট্রাল কানেকশন বিন্দু থাকে না। তা সত্বেও এই নেটওয়ার্কের এক একটু দন্ড না তরঙ্গ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্র্যান্ড নোডের মতো কাজ শুরু করে। ফলে, খুব ভাল নেটওয়ার্ক রেঞ্জ পাওয়া যায় অন্য মোবাইলে। এর ফলে কোনও রকম মুখ্যধারার নেটওয়ার্ক ছাড়াই যে কোনও নেটওয়ার্কের মোবাইলে মেসেজ করা সম্ভব।

এই নেটওয়ার্ক কি কাজ করছে?

ফায়ারচ্যাট নামে একটি অ্যাপ অনেকটা এই নেটওয়ার্কের কাজ করছে। ফায়ারচ্যাট গত মার্চ মাসেই ওয়েব দুনিয়ার আত্মপ্রকাশ করেছে। এই অল্প সময়ের মধ্যে লাখো মানুষ এই অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করেছে। এই মেশ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আপনি সহজেই মেসেজ, ফটো এবং ভিডিও পাঠাতে পারবেন। খুব শিগগির জনপ্রিয় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরাও মেশ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে চ্যাট করতে পারবেন। এই অ্যাপটি সম্প্রতি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলেও যুক্ত কার হয়েছে। ফলে, যেকোনো দিন আপনিও কোনো মোবাইলের সিগন্যাল ছাড়াই মেসেজ, ছবি পাঠাতে পারবেন।

এই নয়া প্রযুক্তির নাম ‘মেশ নেটওয়ার্ক’। এই নেটওয়ার্কের সুবিধা রয়েছে, যা দুনিয়ায় একটা বিপ্লব ঘটাতে চলেছে। ‘মেশ নেটওয়ার্ক’ প্রযুক্তির মাধ্যমে দুরসঞ্চার দুনিয়ার মানুষজন ইন্টারনেটে মুখ্য ধারায় জুড়ে যাবে। এর জন্য কোনো রকম ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন পড়বে না।