এক দিনেই কোরবানী’র বর্জ্য অপসারন মেয়র

প্রকাশ:| সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ০৮:২৯ অপরাহ্ণ

fghচট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন পবিত্র ঈদুল আযহা’র ১(এক)দিনের মধ্যে কোরবানী’র পশুর নাড়ী-ভুঁড়ি ও বর্জ্য অপসানের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ঈদের দিন সকাল থেকে দু’হাজার কর্মী, ১৩৮ টি গাড়ী, ডাম্পট্রাক, পেলোডার, ৩৫টি ভ্যান গাড়ী, ৩৫টি টেম্পু দ্বারা নগরীতে জবাইকৃত পশুর নাড়ী-ভুঁড়ি ও বর্জ্য অপসারন করা হবে। মেয়র বলেন, দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিনের জবাইকৃত পশুর নাড়ী-ভুঁড়ি ও বর্জ্য অনুরূপভাবে অপসারন করা হবে। ঈদের দিন এবং ঈদের পরের দিন বর্জ্য অপসারনে নিয়োজিতদের খাবার পরিবেশন সহ তাদের উৎসাহ ভাতা প্রদান করা হবে। তিনি বলেন, বর্জ্য অপসারনে নিয়োজিতদের মধ্যে যার ওয়ার্ডে কম সময়ে বর্জ্য অপসারন কাজ সম্পন্ন করা হবে সেই ওয়ার্ডকে পুরস্কৃত করা হবে। মেয়র, নগরবাসী’র পরিবেশ সুরক্ষায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আমূল পরিবর্তন আনা হয়েছে বলে জানান। তিনি বলেন, রাতে বর্জ্য অপসারনের জন্য লাইটযুক্ত হেলম্যাট, আধুনিক হুইলবেরু, সেবকদের নতুন ড্রেস,রেইনকোট, সেফটি সু ইত্যাদি প্রদান করা হয়েছে। রাতে বর্জ্য অপসারন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। শুধুমাত্র পবিত্র ঈদুল আযহা’র বর্জ্য অপসারনে ঈদের দিন এবং পরবর্তী দুই দিন রাত-দিন বর্জ্য অপসারন কার্যক্রম চলবে। ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৫ খ্রি. সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে বর্জ্য ব্যাবস্থাপনা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি ও পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, তত্বাবধায়ক, পরিদর্শক, সুপারভাইজার ও দলপতিদের এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় ঈদের দিন এবং পরের দিন কোরবানী’র পশুর নাড়ী-ভুঁড়িও অন্যান্য বর্জ্যাদি অপসারন কার্যক্রম গতিশীল করা ও তদারক করা’র বিষয়ে ৪১টি ওয়ার্ডকে ২টি জোনে ভাগ করে দায়িত্ব বন্টন করা হয়। এছাড়াও ২টি জোনকে ৪ টি উপ-জোনে জোনে ভাগ করা হয়। উত্তর জোনে ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোবারক আলী, দক্ষিণ জোনে ২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ, পূর্ব জোনে ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক্ এবং পশ্চিম জোনে সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিসেস জেসমিনা খানমকে আহবায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতির’র নেতৃত্বে কমিটির সদস্যবৃন্দ সার্বক্ষণিক মনিটরিং এর দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন।এছাড়াও প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তার তত্বাবধানে পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা, তত্বাবধায়ক, পরিদর্শক, সুপারভাইজার ও দলপতিগণ স্ব-স্ব ওয়ার্ডে দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন। সভায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি শৈবাল দাশ সুমন, সদস্য কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, কাউন্সিলর এ কে এম জাফরুল ইসলাম, কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ, কাউন্সিলর মো.হাবিবুল হক, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিসেস জেসমিনা খানম, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আ লম, সচিব রশিদ আহমদ, নির্বাহী ম্যজিষ্ট্রেট মিসেস নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ শফিকুল মন্নান সিদ্দিকী, পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম, শেখ হাসান রেজা সহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন। সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের যান্ত্রিক ও বিদ্যুৎ শাখার দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণও
উপস্থিত ছিলেন।
নিউজচিটাগং২৪/আ/আর