এক দলীয় নির্বাচন সব দল মিলে এক সঙ্গে রুখে দিতে হবে-বি চৌধুরী

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:১২ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগ সরকারের এক দলীয় নির্বাচন ঠেকাতে সব দল মিলে এক সঙ্গে রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়েছেন বিকল্পধারার সভাপতি সাবেক রাষ্ট্রপতি ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।বি চৌধুরী১

শুক্রবার বিকেলে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা পরিষদ মাঠে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় এ আহবান জানান তিনি।

এতে সভাপতিত্ব করেন কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর আহমেদ, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, নাসরিন কাদের সিদ্দিকী, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব:) আবদুল মান্নান, সাবেক পররাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরী, হাবিবুর রহমান বীরপ্রতীক, আজাদ সিদ্দিকী, ইকবাল সিদ্দিকী, হামিদুল হক বীরপ্রতীক প্রমুখ।

বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, “শেখ হাসিনার অধীনে নয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই আগামী সংসদ নির্বাচন দিতে হবে।”

বিএনপির শীর্ষ পাঁচ নেতাকে গ্রেফতার ও রিমান্ডে নেওয়ার সমালোচনা করেন তিনি।

সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, “এ সরকার গত পাঁচ বছরে ১২ বার বিদ্যুৎ ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে। এ সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করে বিদেশে পাচার করেছে।”

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর আহমেদ বলেন, “দেশে আজ অবৈধ সংসদ চলছে। শেখ হাসিনা ছাড়া আর কেউই মন্ত্রী পরিষদে নেই।”

এরশাদ শিগগিরই মহাজোট ছাড়বেন বলে এ সময় আরো জানান তিনি।।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান সরকারকে হুশিয়ার করে বলেন, “তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না।”

সভাপতির ভাষণে কাদের সিদ্দিকী এরশাদের সমালোচনা করে বলেন, “মহাজোট ও মহাচোরদের সঙ্গে এরশাদ থাকায় আমি তাকে দাওয়াত দেইনি। এরশাদ ওই মহাজোট না ছাড়লে তার সঙ্গে আমি নেই।”


আরোও সংবাদ