একাত্তরের হাতিয়ার হাতে তুলে নিয়েছি-মহিউদ্দিন

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ০৮:৪০ অপরাহ্ণ

প্রেস রিলিজ::চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে যারা বিপন্ন করতে তৎপর তাদের বিরুদ্ধে একাত্তরের হাতিয়ার তুলে নিয়েছি। অপশক্তির সর্বনাশ নিশ্চিত করে জাতিকে উদ্ধারের জন্য আমরা সর্বশক্তি নিয়োগ করেছি। আজ বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নাশকতা ও নৈরাজ্য বিরোধী ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে নিমতলা বিমান চত্বরে বন্দর থানা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, জঙ্গিবাদ বিশ্ব সভ্যতার শত্র“। এই শত্র“কে ইন্ধন যোগাচ্ছেন খালেদা জিয়া। তিনি মাটি ও মানুষের প্রতিপক্ষ। তাকে আমরা রাজপথে রুখবো। তিনি ঘোষণা করেন, কোন বোমাবাজ দেখা মাত্র তার হাত কর্তন করা হবে। যারা বোমাবাজির ইন্ধনদাতা তাদের যানমাল ধ্বংস করা হবে।
বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলমের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: ইলিয়াছ’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় আরো বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, উপদেষ্টা আলহাজ্ব সফর আলী, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য নোমান আলী মাহমুদ, শফিক আদনান, শফিকুল ইসলাম ফারুক, এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, মশিউর রহমান চৌধুরী, আবদুল আহাদ, ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী, কামরুল হাসান বুলু, রোটারিয়ান মো: ইলিয়াছ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সুলতান আহমদ, সাইফুল আলম চৌধুরী, আবদুল মান্নান, হাজী হাসান মুরাদ, হাজী মোহাম্মদ হাসান, মমতাজ উদ্দিন, ওহিদুল্লাহ সরকার, ইসকান্দর মিয়া, মহানগর শ্রমিক লীগের কাজী মাহবুবুল হক চৌধুরী এটলী, শাহ নেওয়াজ চৌধুরী, আবু তাহের, মাঈনুদ্দিন শফি মাষ্টার, ফখরুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম, হাসান মুরাদ, মো: মোরশেদ আলী, রেজাউল করিম কায়সার, এস.এম. ফারুক, জাকির মিয়া, হাবিব শরিফ, মো: সালাউদ্দিন, নুর মোহাম্মদ, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু, রেজাউল আলম রনি, রাহুল বড়–য়া, জাকারিয়া দস্তগীর, মাহবুবুর রহমান, ইকবাল আল নূরী প্রমুখ।
মহিউদ্দিন চৌধুরী

আলেম সমাজের সাথে মতবিনিময়কালে-মহিউদ্দিন চৌধুরী

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ইসলাম একটি পবিত্র ধর্ম দর্শন। এর মূলমন্ত্র শান্তি। এই বাণীকে তিনি ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া আলেম সমাজের ঈমানী দায়িত্ব। তিনি আরো বলেন, কোরআন ও সুন্নাহ সমর্থন করে বিশ্বের দেশে আই.এস. জঙ্গিরা নিরীহ মানুষ হত্যা করে শান্তির ধর্ম ইসলামকে বিতর্কিত করার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত তাদের নির্মূল করতে মসজিদে ও ইবাদত খানায় ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের মুচ্ছল্লীদের উদ্বুর্ধ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, জ্বালাও-পোড়াও, মানুষ হত্যা কোরআন ও সুন্নাহ সমর্থন করে না। আজ সকালে দক্ষিণ পতেঙ্গা ৪১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলেম সমাজের সাথে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন। তিনি ক্রান্তিকাল ও উত্তরণে আলেম সমাজের মতামত সম্বলিত প্রচার পুস্তিকা প্রকাশের তাগিদ দেন।
মতিবিনময় সভায় আলেমগণ বলেন, আলেমগণ সামাজিক অভিভাবক। প্রতি শুক্রবার জুমার নামাজে খুৎবা পাঠের পূর্বে প্রতিটি ঈমাম ও খতিবগণ দেশে ও সমাজে জ্বালাও-পোড়াও মানুষ হত্যার মত যে জঘন্য অপকর্ম চলছে তা থেকে বিরত থাকা সামাজিক শান্তি। স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের স্বপক্ষে বয়ান করেন। কারণ শান্তিপ্রিয় ধর্মপ্রাণ মুসলামনসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষ ইমান ও খতিবদের কথা গুরুত্বের সাথে গ্রহণ করেন ও পালন করেন।
আলহাজ্ব সালেহ আহমদ চৌধুরী’ সভাপতিত্ব ও নুরুল আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন-এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, আবদুল হালিম, এ.এস.এম. ইসলাম, আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ একলাছুর রহমান, মাওলানা সামশুল ইসলাম খান কাশেমী, মাওলানা নুরুল্লাহ, মাওলানা মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, মাওলানা মোস্তা হাজেন বিল্লাহ, সিরাজদৌলা, নুরুল ইসলাম সওদাগর, আবুল বশর, কামাল, মো: আবদুল হালিম, আবু জহুর, সেলিম, ওয়াহিদ চৌধুরী প্রমুখ।