উপজেলা নির্বাচনে উদ্বেগ উৎকন্ঠায় নাইক্ষ্যংছড়ির ভোটারেরা

প্রকাশ:| শনিবার, ২২ মার্চ , ২০১৪ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

বান্দরবান প্রতিনিধি ॥
উদ্বেগ উৎকন্ঠায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ভোটারেরা। প্রার্থীদের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ গ্রহণ করে বহিরাগতদের নির্বাচনী এলাকা ছেড়ে চলে যেথে মাইকিং করা হচ্ছে। শনিবার দুপুরে বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মনিরুল হকের সভাপতিত্বে সেনাবাহিনী, জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কারবারী এবং ধর্মীয় নেতারা শান্তি শৃঙ্খলা বজায় সুষ্ঠ-নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনে মতবিনিময় করেছে। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে সেনাবাহিনীর মেজর কামরুল’সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার গনমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ৩১ হাজার ৪৪৬ জন ভোটারের ভোট গ্রহণ করা ২৪টি ভোট কেন্দ্রে। ২৩ মার্চ সকাল আটটা থেকে শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোট গ্রহণের সমস্ত প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তবে উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের মধ্যে দৌছড়ি, বাইশারী এবং ঘুমধুম ইউনিয়নের ১১টি ভোট কেন্দ্র’কে ঝুকিপূর্ন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ভোটার সুলতান, মাইনুদ্দীন’সহ স্থানীয় ভোটারেরা জানান, উপজেলার বাইরের বহিরাগত সন্ত্রাসীদের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে নাইক্ষ্যংছড়িতে। উদ্বেগ উৎকন্ঠার মধ্যে ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে যাবো। সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়েও শঙ্কায় আছি। বিষয়টি স্বীকার করে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা রিটার্নিং অফিস আহমেদ জামিল জানান, উদ্বেগ উৎকন্ঠায় আছে ভোটারেরা বিষয়টি সত্য। তবে শঙ্কার কোনো কারণ নেই, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট’সহ ৮ জন ম্যাজিষ্ট্রেট এবং বিজিবি, র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা নির্বাচনের নিরাপত্তায় রয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে, আশা রাখতি শান্তিপূর্ন পরিবেশের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হবে।

প্রসঙ্গত: চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন আওয়ামীলীগসহ ১৪ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী মো: শফি উল্লাহ (আনারস) এবং বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোট সমর্থিত প্রার্থী কারাবন্দি তোফাইল আহমদ (মোটর সাইকেল) প্রতিক নিয়ে। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ পদে বিএনপি সমর্থিত কামাল উদ্দিন (চশমা), আওয়ামীলীগ সমর্থিত চোচু মং মারমা (টিয়া পাখি), আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী মির্জা হাবীব (উড়োজাহাজ), জামায়াত সমর্থিত অবছার কামাল (তালা), বিএনপি বিদ্রোহী প্রার্থী ফরিদুল আলম (টিউবওয়েল) এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী হামিদা চৌধুরী (ফুটবল) ও আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ওজিফা খাতুন রুবী (কলস) প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।