উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে জাতীয় পার্টি এগিয়ে

প্রকাশ:| বুধবার, ২ নভেম্বর , ২০১৬ সময় ০৯:২০ অপরাহ্ণ

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের রাষ্ট্র ক্ষমতায় যারা সরকার গঠন করেছে তাদের সবার চেয়ে বেশি উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে জাতীয় পার্টি এগিয়ে আছে বলে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী জিয়াউদ্দীন মাহম্মেদ বাবলু।

তিনি বলেন, পল্লীবন্ধু এরশাদ জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামলে বাংলার কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি, পেশাজীবী সকল শ্রেণির মানুষের প্রত্যাশা পূরণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে দেশকে উন্নয়নশীল বিশ্বের কাতারে নিয়ে গিয়েছিলেন। সে সময় দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ৪৭০টি ছোট বড় ব্রীজ, ৪ হাজার আটশ কিলোমিটার পাকা রাস্তা নির্মাণ, প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়নের ধারা পৌঁছে দিতে ২০টি মহকুমা ভেঙ্গে ৬৪টি জেলা, ৪৭০টি উপজেলা, ঢাকা সিটি কর্পোরেশন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, সৃষ্টি করেছিলেন।

বুধবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির নতুন কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

পল্লীবন্ধু এরশাদ যমুনা বহুমুখী সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের আধুনিকায়ন, ইউরিয়া সার কারখানা, কর্ণফুলী ২য় সেতু, রাউজান তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র, শিপিং কর্পোরেশন কার্যালয়, চা বোর্ডসহ গুরুত্বপূর্ণ দফতর চট্টগ্রামে স্থাপন করেছিল।

তখন সারাদেশের মতো চট্টগ্রামের মানুষ শান্তিতে ছিল দাবি করে তিনি বলেন, সন্ত্রাস, টেন্ডারবাজি, গুম, হত্যা, জঙ্গিবাদ ছিল না। দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতি ছিল না। সরকারি চাকরি নীতিমালায় পল্লীবন্ধু এরশাদ কোন প্রকার হস্তক্ষেপ করেন নি। মেধার ভিত্তিতে সরকারি চাকরিতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল বলেই দেশ দ্রুত উন্নয়নের দিকে এগিয়ে গেছে।

নগর জাপা সভাপতি মাহজাবীন মোরশেদ’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এয়াকুব হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে জাপা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সাবেক সংসদ সদস্য সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, নগর জাপা সিনিয়র সহ সভাপতি তপন চক্রবর্ত্তী, নগর জাপা সহ-সভাপতি ওসমান খান, কামরুজ্জামান পল্টু, আলী আজগর চৌধুরী, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, কামাল উদ্দিন আহমেদ. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন জ্যাকি, সাংগঠনিক সম্পাদক জহুরুল ইসলাম রেজা, রেজাউল করিম রেজা, হাজী শওকত আকবর, মাহমুদুল করিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।