উদ্ভাবনী শক্তির উন্মেষ ঘটিয়ে কল্যাণমুখী শিক্ষায় ব্রতী হন

mirza imtiaz প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০৩:৫৭ অপরাহ্ণ

আইকিউএসি’র কর্মশালায় চ.বি. উপাচার্য

ওহংঃরঃঁঃরড়হধষ ছঁধষরঃু অংংঁৎধহপব ঈবষষ (ওছঅঈ), চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়-এর উদ্যোগে ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখ বেলা ১১.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দপ্তরের সভা কক্ষে ‘ঝঐঅজওঘএ ঊঢচঊজওঊঘঈঊঝ অঘউ ওঘঠওঞওঘএ ঝটএএঊঝঞওঙঘঝ ঋঙজ অঈঅউঊগওঈ ঊঢঈঊখখঊঘঈণ ঙঋ ঈট’ শীর্ষক একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ কর্মশালা উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
মাননীয় উপাচার্য তাঁর ভাষণে উপস্থিত শিক্ষক-গবেষকবৃন্দকে স্বাগত ও আন্তরিক অভিনন্দন জানান। তিনি শিক্ষক-গবেষকদের পেশাগত উৎকর্ষতা বৃদ্ধিতে দায়িত্ব সচেতনতা বৃদ্ধি, আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চা, অভিজ্ঞতা বিনিময়, জ্ঞান আহরণ-বিতরণে বিবেকপ্রসূত হওয়ার ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা-গবেষণা ও প্রশাসনিক উন্নয়নে বিগত তিনবছর আইকিউএসি’র নিরবচ্ছিন্ন ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। মাননীয় উপাচার্য আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা-গবেষণা ও প্রশাসনিক কার্যক্রমসহ বিভিন্ন সূচকে অভূতপূর্ব সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ এ বিশ্ববিদ্যালয় এখন দেশের ১ নম্বর বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং-এ ৩০৫০। এ অর্জনকে অধিকতর সমৃদ্ধ করতে আমাদের সক্ষমতা, সুযোগ, ঝুঁকি ও সম্ভাবনাকে সার্বিক অর্থে সমন্বয় করে ‘মিশন’ ও ‘ভিশন’ বাস্তবায়নে দায়িত্বশীল হতে হবে। তিনি আরও বলেন, আত্মজিজ্ঞাসা, আত্মউন্নয়ন ও নিজস্ব উদ্ভাবনী শক্তির উন্মেষ ঘটিয়ে কল্যাণমুখী শিক্ষায় ব্রতী হতে হবে। মাননীয় উপাচার্য আজকের দিনব্যাপি কর্মশালার সার্বিক সফলতা কামনা করে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চ.বি. মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। আইকিউএসি’র পরিচালক প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে এবং অতিরিক্ত পরিচালক জনাব সুকান্ত ভট্টাচার্যের পরিচালনায় এ কর্মশালায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪২টি বিভাগ/ইনস্টিটিউটের ১২৬ জন শিক্ষক-গবেষক অংশগ্রহণ করেন। শুরুতেই আইকিউএসি’র পরিচালক আইকিউএসি’র সার্বিক কার্যক্রম তুলে ধরে একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন। মুক্ত আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণকারী শিক্ষক-গবেষকবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা উন্নয়নে তাঁদের অভিজ্ঞতা, সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ তুলে ধরেন।


আরোও সংবাদ