উত্তাপ: সিকিম-তিব্বত সীমান্তে ভারত-চীনের পাল্টাপাল্টি সেনা মোতায়েন

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন , ২০১৭ সময় ১০:১৫ অপরাহ্ণ

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমে সীমান্ত রেখা অতিক্রম করে একদল চীনা সৈন্য দুটি বাঙ্কার গুঁড়িয়ে দিয়েছে অভিযোগে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দুইবার পতাকা বৈঠক করেও চীনের সঙ্গে ২২ দিনের অচলাবস্থা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। বরং প্রতিবেশী দুটি দেশই সিকিম-তিব্বত-ভুটান সীমান্তের ডোকা লা এলাকায় সেনা মোতায়েন করেছে বলে জানা গেছে।

ভারতীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে জানানো হচ্ছে, ইতোমধ্যে নিজেদের সীমান্তে ৪ ব্যাটেলিয়ন সেনা পাঠিয়েছে ভারত। সীমান্তের ওপারে প্রায় সমসংখ্যক চীনা সেনাও অবস্থান নিয়েছে। আর এতে সেখানকার সীমান্ত পরিস্থিতি ব্যাপক উত্তপ্ত রয়েছে।

জানা যায়, ১৯৬২ সালের ভারত-চীন যুদ্ধের পর ১৪ হাজার ফুট উপরে ভারত, ভুটান ও চীন সামান্তে ডোকা লা মালভূমি এলাকায় ইন্দো টিবেটান বর্ডার পুলিশ (আইটিবিপি) মোতায়েন থাকে। আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে তাদের শিবির ১৫ কিমি ভিতরে। কিন্তু সেনাও ওই চত্বরে নিয়মিত লং রুট পেট্রলিং করে। সম্প্রতি ডোকা লা’তে সুন্দর রাস্তাও তৈরি করে ফেলেছে সেনারা।

কিন্তু এরপর থেকেই দুই বাহিনীর মধ্যে তৎপরতা বাড়তে থাকে। দু’পক্ষের সেনা ডোকা লা অঞ্চলে বারবার সামনাসামনি চলে আসতে থাকায় উত্তেজনা বাড়ে। ভারত সীমান্তে প্রবেশ করে চীন কেনো রাস্তা তৈরি করছে, তা নিয়েও প্রতিবাদ জানায় ফোর্ট উইলিয়াম। ৬ জুন এ নিয়ে ফ্ল্যাগ মিটিংও হয়।

কিন্তু তার দু’দিন পরেই ৮ জুন চীনা সেনারা ভারতের ভূখণ্ডে ঢুকে দু’টি বাঙ্কার গুঁড়িয়ে দেয়। এরপরেই গ্যাংটকের ১৭ নম্বর ব্ল্যাক ক্যাট ডিভিশন ও সুকনার কোর কম্যান্ড থেকে বাড়তি চার ব্যাটেলিয়ন সেনা জমায়েত করে ভারত।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।