উখিয়ায় ক্যাম্প পরিদর্শনকালে রাষ্ট্রদূত রিনা পি চুমারানু

প্রকাশ:| বুধবার, ৮ নভেম্বর , ২০১৭ সময় ১০:১৮ অপরাহ্ণ

কায়সার হামিদ মানিক,উখিয়া::
ইন্দোনেশিয়ার বাংলাদেশস্থ রাষ্ট্রদূত রিনা পি চুমারানু বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের উপর জাতিগত নিষ্টুর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ আজ বিশ্ব সম্প্রদায় বিস্মিত। এ ধরনের বর্বর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ তিনি আরো বলেন রোহিঙ্গা ইস্যু সংকট সমাধানে ইন্দোনেশিয়া বাংলাদেশের পাশে থাকবে। বিপন্ন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ সরকার যে মানবতার পরিচয় দিয়েছেন সত্যিই প্রশংসার দাবী রাখেন। অবিলম্বে রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত নিতে মিয়ানমারকে আরো কঠোর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখার জন্য আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়কে তিনি আহ্বান জানান।
বুধবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও আশ্রয় শেল্টারের চলমান নির্মাণ কাজ পর্যবেক্ষণ কালে রাষ্ট্রদূত এ কথা বলেন।
এর আগে বাংলাদেশস্থ রাষ্ট্রদূত রিনা পি চুমারনু রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবার সুবিধার্থে ইন্দোনেশিয়া ভিত্তিক এনজিও সংস্থা এসিটি পরিচালিত ফ্রি চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকালে এসিটির ডাইরেক্টর মি: ভাং ভাং, আল্লামা ফয়েজ উল্লাহ ফাউন্ডেশনের প্রজেক্ট ডাইরেক্টর ও ফরেন এপারস সেক্রেটারী মোহাম্মদ ইদ্রিসসহ বাংলাদেশস্থ ইন্দোনেশিয়া এ্যামবেসির উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য ইন্দোনেশিয়া সরকার, ইন্দোনেশিয়া ভিত্তিক এনজিও সংস্থা এসিটি এবং আল্লামা ফয়েজ উল্লাহ ফাউন্ডেশন মিয়ানমার হতে আগত বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের মানবিক সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। তৎমধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ, বিনামূলে চিকিৎসা, মসজিদ নির্মাণ, অনাথ শিশুদের সু-রক্ষাসহ রোহিঙ্গাদের জন্য কুতুপালং ডি-ব্লকে ১ হাজার পরিবারকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য আশ্রয় শেড নির্মাণ করছে।