ঈদ আনন্দে মাতোয়ারা পারকি বিচ, পর্যটকদের ভিড়

প্রকাশ:| শনিবার, ১ জুলাই , ২০১৭ সময় ১০:৪০ অপরাহ্ণ

আনোয়ারা প্রতিনিধি:
দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত পারকি সমুদ্র সৈকতে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত পর্যটকদেও বিড়ে বিরাজ করছে আজো উৎসবের আমেজ। পবিত্র ঈদ উল ফিতরের বন্ধ পেয়ে পারকি বিচে আসছে বিভিন্ন এলাকার স্কুল, কলেজের শিক্ষার্থী, এলাকা ভিক্তিক ক্লাবের সদস্যরা, পাশাপাশি স্বপরিবারে সমুদ্র সৈকতে সাগরের পানিতে এক কোমর নামতে আসছে স্বজনরা।
জানা যায়, অন্য বছরের চেয়ে এ বছর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক, বৃষ্টি না থাকায় পর্যটকদের ভিড় আরো বেশি অনান্য বছরের তুলনায়। পটিয়া, বাশখালী, চন্দনাইশ, মীরসরাই, সীতাকুন্ড, ফেনী, রাঙ্গুনীয়া, লক্ষীপুর, চকরিয়া থেকেও আসছে পর্যকটরা পারকি বিচে। কেউ আসছে বন্ধুদের সাথে দলবদ্ধভাবে, আবার কেউ আসছে প্রিয় মানুষের সাথে নিরিবিলিতে খানিকটা সময় কাটাতে, অনেকে আসছে আবার স্বপরিবারে। পারকি বিচে গাড়ি পার্কিং সুযোগ সুবিধা ও খাবারের উন্নত পরিবেশ না থাকায় কিছুটা বেকায়দায় থাকলে আনন্দে ভূলে যাচ্ছে এসব। আগত পর্যটকদেও দাবি গাড়ি পার্কিং, রাত যাপনের জন্য হোটেল, পর্যটকদেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তার জন্য ট্যুরিষ্ট পুলিশের প্রয়োজন পারকি বিচে। তাহলে আরো বাড়বে পর্যটকদের ভিড়।
আনোয়ারা পারকি বিচ দিন দিন জনপ্রিয়তা হয়ে উঠছে বিনোদন প্রেমী মানুষের কাছে। এনিয়ে স্থানীয় কিছু অসাধু ব্যাক্তি চালিয়ে যাচ্ছে অনৈতিক কর্মকান্ড। সৈকতের বালি চওে মোটর বাইকে কওে আগত পর্যটকদেও নানাভাবে হয়রানি করছে। ক্ষমতাসীন নেতার পরিচয়ে পার পেয়ে যাচ্ছে তারা।
মীরসরাই থেকে আসা সাবিনা আকতার নামক পর্যটক বলেন, পারকি বিচ মনোমুগ্ধকর জায়গা, কিন্তু কিছু বখাটে এখানে নারীদের যৌনহয়রানি করছে। গায়ের উপর মোটর স্ইাকেল চালিয়ে নানা রকম কথা বলছে।
এব্যাপারে স্থানীয় পারকি সমুদ্র সৈকত ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জামাল উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোনে সংযোগ পাওয়া যায়নি।