ঈদে ঘরমুখো মানুষের কুতুবদিয়া চ্যানেল পারাপারে সুখবর

প্রকাশ:| বুধবার, ২২ জুন , ২০১৬ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

ডেনিস বোট
প্রশাসনের নজরদারী, অতিরিক্ত যাত্রী-ভাড়া আদায় করলে জরিমানা

লিটন কুতুবী,
কুতুবদিয়া:
ঈদের ঘর মুখো মানুষের জন্য কুতুবদিয়া চ্যানেলে পারাপার যাত্রীদের নিরাপত্তার জোরদার করেছে উপজেলা প্রশাসন। অতিরিক্ত যাত্রী ও ভাড়া আদায় করলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা জেলের হুশিয়ারী দেয়া হয়। গতকাল ২২ জুন (বুধবার) উপজেলার জেটি ঘাট ও টারমিন্যাল ইজারাদারদের সাথে ইউএনও সালেহীন তানভীর গাজীর কার্যালয়ে সকাল ১১ টায় বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে অতিরিক্ত যাত্রী নিলে দূর্ঘটনার সম্ভাবনা থাকে বেশী। এ ইউএনও এ আদেশ দেয়ায় ঘাট ইজারাদাররাও খুশি বলে জানিয়েছেন দরবার জেটি ঘাটের ইজারাদার মীর কাশেম। বৈঠকে জানানো হয়, বড়ঘোপ থেকে মগনামা ও দরবার ঘাট থেকে মগনামা পারাপারের ক্ষেত্রে ডেনিস (বোট) ভাড়া জনপ্রতি ২০ টাকা এবং আলী আকবর ডেইল থেকে উজানটিয়া পারাপারের ক্ষেত্রে ভাড়া জনপ্রতি ৩০ টাকা । স্পীড বোটে এ ভাড়া দরবার ঘাট থেকে মগনামা ঘাট ৮০ টাকা এবং বড়ঘোপ থেকে মগনামা পারাপারে ৭০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। কুতুবদিয়া চ্যানেল পারাপারে জীবনের ঝুঁকির কথা চিন্তা করে নেয়া হয়েছে চমকপ্রদ এ কঠোর ব্যবস্থা। ছোট ও মাঝারী ধরনের ডেনিস বোটে যাত্রী ধারণ ক্ষমতা নির্ধারণ করা হয়েছে শিশুসহ ৩৫ জন এবং বড় সাইজের ডেনিস বোটের ক্ষেত্রে তা ৫০ জন নির্ধারণ করা হয়েছে। সেই সাথে প্রতিটি ডেনিসে ১০০ কেজির অধিক মালামাল বুঝাই করা যাবে না বলে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। এ আদেশের ব্যতীক্রম হলে ইজারাদারকে গুণতে হবে ৫০,০০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা। কোন ইজারাদার এ নীতিমালার বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনা করলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা। তাছাড়া ১ জুলাই থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত কুতুবদিয়া চ্যানেল পারাপারের ক্ষেত্রে রিজার্ভ বোট নাম দিয়ে কেউ যেন অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে না পারে তার জন্য রাখা হয়েছে যাত্রী হলেই ডেনিস ছাড়ার ব্যবস্থা (যা নিয়মিত ১ ঘন্টা পর পর ছাড়া হয়)। ভাড়া আদায়ের ক্ষেত্রে টিকেট বা রশিদের ব্যবস্থা করার পরামর্শ রাখা হয়েছে এ বৈঠকে। ফলে দীর্ঘদিন ধরে কুতুবদিয়া চ্যানেল পারাপারে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও যাত্রীবাহী ডেনিসে অতিরিক্ত মালামাল নেয়ার অভিযোগটি প্রশাসনের আন্তরিক ও কঠোর নীতিমালায় নিয়ে আসায় পারাপারের ক্ষেত্রে জীবনের ঝুঁকি কমবে বলে আশা করছেন সচেতন মহল । আগামী ১ জুলাই হতে ইজারার মেয়াদ পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। পারাপারে ভাড়ামুক্ত থাকবে উপজেলায় কর্মরত সরকারী চাকরীজীবীরা। ইজারা শর্তে এসব বিষয় স্পষ্ট উল্ল্যেখ করা আছে। পারাপারের ক্ষেত্রে সাবির্ক তদারকীর দায়িত্বে থাকবে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।