ঈদগাঁও বাজারে অবৈধ উচ্ছেদ অভিযান

প্রকাশ:| বুধবার, ১৭ মে , ২০১৭ সময় ১০:২৪ অপরাহ্ণ

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও (কক্সবাজার) প্রতিনিধি: কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও বাজারে জালালাবাদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে আকষ্মিক অভিযান চালিয়েছে। ১৭ মে দুপুর ২টার দিকে বাজারে বিভিন্ন অলিগলিতে এ অভিযান চালানো হয়। এসময় বাজারে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঝুপড়ি ও ফুটপাত উচ্ছেদ এবং সড়কের দু’পাশে দখলমুক্ত করেন।
জানা যায়, চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদের নেতৃত্বে ১নং ওয়ার্ডে মেম্বার মোক্তার আহমদ, ২নং ওয়ার্ডের সাইফুল হক, ৫নং ওয়ার্ডের নুরুল আলম, ৬নং ওয়ার্ডের মোফাচ্ছেল, ৭নং ওয়ার্ডের মনজুর আলম, ৮নং ওয়ার্ডের আবু তাহেরসহ চৌকিদার, দফাদার নিয়ে বাজারের হাসপাতাল সড়ক, মরিচ বাজার সড়ক, কাপড়ের গলি, স্বর্ণের দোকান, পুরাতন পাইপ বাজার, ডিসি সড়ক, বাঁশঘাটা, মাছ বাজার, মাংসের দোকান, শুকটি বাজারসহ বিভিন্ন সড়কে এ অভিযানটি পরিচালনা করা হয়। এসময় অভিযানকারী দলের সদস্যরা অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে গড়ে তোলা স্থাপনা গুড়িয়ে দেয় এবং বিক্রির উদ্দেশ্যে স্তুপ করে রাখা বাসি মাংস ধ্বংস করে। অভিযান চলাকালে তাদের সহযোগিতা করেন তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই মহিউদ্দীন। দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ঝুপড়ি ও রাস্তার দু’পাশে ফুটপাত দখলের কারণে গাড়ি চলাচলসহ পথচারীদের দূর্ভোগ বেড়ে গিয়েছিল। পবিত্র মাহে রমজানকে সামনে রেখে উপজেলা প্রশাসনের অনুমতিক্রমে এ অবৈধ ঝুপড়িগুলো উচ্ছেদ করে জনগনের দুঃখ-দূর্দশা লাঘব করতে এ সাহসী উদ্যোগটি নেওয়ায় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের ধন্যবাদ জানিয়েছে বাজার ব্যবসায়ীরা। তবে অভিযান চলাকালে ভূমি অফিস সংলগ্ন একটি ফ্রুটের দোকানের মালামাল সরাতে গিয়ে দোকান মালিক ও চৌকিদারদের সাথে বাক-বিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনাও ঘটেছে। পরে অবশ্য তা নিয়ন্ত্রণে আসে। চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ জানান, উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে এ অভিযানটি পরিচালনা করা হয়েছে এবং রমজান মাসকে সামনে রেখে অব্যাহত রাখবেন। ঐদিন যানজট নিরসনের লক্ষ্যে চেয়ারম্যানের নিজস্ব অর্থায়নে পুরাতন পাইপ বাজারের পরিত্যাক্ত সড়কটি বাইপাস সড়ক করার লক্ষ্যে নির্মাণ কাজ শুরু করে।


আরোও সংবাদ