ঈদগাঁওয়ে নৈশপ্রহরীর ইটের আঘাতে শিক্ষার্থী আহত

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই , ২০১৮ সময় ০৯:৩২ অপরাহ্ণ

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও প্রতিনিধি: কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী স্কুলের নৈশ প্রহরীর ইটের আঘাতে ঈদগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির এক মেধাবী শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছে। গত রবিবার দুপুরে ঈদগাহ্ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষার্থীর নাম ইশহাজ মাহমুদ (১১)। ইশহাজ ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শফিউল আলমের ছেলে। সংঘটিত ঘটনার প্রতিকার চেয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহম্মদ রফিকুল ইসলাম জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে সংশ্লি সূত্র জানিয়েছে।
অভিযোগে প্রকাশ, ঘটনার দিন আহত ইশহাজ দুপুরের বিরতি চলাকালে তার অন্যান্য বন্ধুদের সাথে খেলা করছিল। একসময় ইশহাজসহ তার আরো ২-৩ জন বন্ধু মাঠের পূর্ব পার্শ্বে অবস্থিত অন্ধ হোস্টেলের গেইট পর্যন্ত যাওয়ার সাথে সাথে ভবনের ভেতরে পূর্বে থেকে অবস্থানরত নৈশ প্রহরী শ্যামল পাল শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে গালাগাল করতে করতে ইট ছুঁড়ে মারে। ভয় পেয়ে শিক্ষার্থীরা পালানোর চেষ্টাকালে একটি ইট ইশহাজের মুখে এসে পড়লে তার দুঠোঁট ফেটে যায় এবং রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। সংবাদ পেয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এসে তাকে উদ্ধার করেন এবং রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে ঈদগাঁওর একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম জানান, ওই দিন তার কাছে বিদ্যালয়ের আরো বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী শ্যামলের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ করে এবং শ্যামল শিক্ষার্থীদের অন্ধ হোস্টেলের দিকে দেখা মাত্র গরম পানি ও ইট ছুঁড়ে মারে বলে জানান। যদিওবা শিক্ষার্থীরা শ্যামলের ভয়ে এতদিন বিষয়টি প্রকাশ করেনি।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, শ্যামলের নির্যাতনের ভয়ে বিদ্যালয়ের মাঠে শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে সাহস পাচ্ছেনা যেকারনে শিক্ষার্থীরা স্কুল বিমুখ হচ্ছে। শ্যামলের এধরনের কার্যকান্ডের বিরুদ্ধে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জোর দাবী জানান।
এ ব্যাপারে জানতে শ্যামলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি।