ঈদগাঁওতে নারী নির্যাতন মামলার আসামী গ্রেফতার

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৭ এপ্রিল , ২০১৬ সময় ১১:৪৯ অপরাহ্ণ

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও: কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও পুলিশের অভিযানে নারী নির্যাতন মামলার মোজাম্মেল হক (৩৫) নামের এক আসামী গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামী ঈদগাঁও ইউনিয়নের দক্ষিণ মাইজ পাড়া গ্রামের মৃত নুরুল আজিমের ছেলে। বৃহষ্পতিবার ৭ এপ্রিল রাত সোয়া ৯টার দিকে ঈদগাঁও বাসস্টেশন থেকে পুলিশ এ আসামীকে গ্রেফতার করে। ধৃত আসামীর ১ম স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক ও নারী নির্যাতন মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।
জানা যায়, ২০১১ সালের ২১ জুন পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় পোকখালী ইউনিয়নের মধ্যম পোকখালী আল ফজল পাড়ার লাল মিয়ার কন্যা পারভিন আক্তারের সাথে উক্ত আসামী মোজাম্মেল হকের। বিয়ের পর থেকে উক্ত আসামী তার স্ত্রী পারভীন আক্তারকে যৌতুকে দাবীতে বিভিন্ন সময় ব্যাপক নির্যাতন করে আসছিল। পারভিন ২ কন্যা ও নিজ সম্মানের দিকে চেয়ে মুখ বুঁঝে সব সহ্য করে আসছিল। ইতিমধ্যে তাদের সংসারে ২ কন্যা সন্তানেরও জন্ম হয়। যৌতুক ও নারী লোভী উক্ত মোজাম্মেল তাতেও ক্ষান্ত না হয়ে নাছিমা সুলতানা লাকি নামের অপর এক মেয়েকে ২য় স্ত্রী হিসাবে বিয়ে করে। এর পর থেকে সতীন ও স্বামী তার উপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এর জেরে ২০১৫ সালের ৩ অক্টোবর ও চলতি সনের ২৯ মার্চ আবারো উক্ত দুজন পারভিন আক্তারকে মোটা অংকের যৌতুকের দাবীতে দফায় দফায় নির্যাতন করে। সর্বশেষ ঘটনার দিন গভীর রাতে ২ কন্যা সন্তানসহ এক কাপড়ে ঘর থেকে টেনে হেচড়ে পারভিনকে বের করে দেয়। স্থানীয় সোহেল রানা নামের এক ব্যক্তি তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। উক্ত ঘটনায় পারভিন আক্তার বাদী হয়ে গত ৩১ মার্চ কক্সবাজার মডেল থানায় যৌতুক লোভী স্বামী মোজাম্মেল হক ও তার ২য় স্ত্রী নাছিমা সুলতানা লাকির বিরুদ্ধে যৌতুক ও নারী নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং ৮৯। উক্ত মামলার জেরে বৃহষ্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঈদগাঁও পুলিশের আইসি মিনহাজ মাহমুদ ভুঁইয়ার নির্দেশে এএসআই আমিরুল ইসলাম ও ফিরোজ আহমদের নেতৃত্বে পুলিশ দল অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী মোজাম্মেল হককে গ্রেফতার করে।


আরোও সংবাদ