ইভিএম থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট

mirza imtiaz প্রকাশ:| শনিবার, ১ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ

একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের লক্ষ্যে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। শুক্রবার আট বাম দলের এই জোটের বিবৃতিতে বলা হয়, ইভিএম বাস্তবায়নের এটা উপযুক্ত সময় নয়। দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে জনআস্থা অর্জন করে এটা কার্যকর করতে হবে। পরিস্থিতি জটিল না করে অবিলম্বে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার থেকে সরে আসতে হবে। এতদিন স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন নির্বাচনে স্বল্প পরিসরে ইভিএম ব্যবহার করা হলেও সংসদ নির্বাচনে কখনও যন্ত্রে ভোট হয়নি। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ইভিএম চালুর বিষয়ে আগ্রহী হলেও বিএনপি ‘ডিজিটাল জালিয়াতির’ সন্দেহ প্রকাশ করে এর বিরোধিতা করে আসছে। খবর বিডিনিউজের।

বিএনপির আপত্তির মধ্যেই জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের পথ খুলতে বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের সভায় গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের সিদ্ধান্ত হয়। তবে কমিশনের ৫ সদস্যের একজন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার তাতে আপত্তি জানিয়ে ‘নোট অব ডিসেন্ট’ দিয়ে সভা বর্জন করেন।

প্রস্তাবিত আরপিও সংশোধন সংসদে পাস ’না’ করার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, তফসিল ঘোষণার মাত্র দুই মাস আগে দ্বিধাবিভক্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ইসি সুষ্ঠু নির্বাচন সম্পর্কে মানুষের আশঙ্কাকে আরও উসকে দিয়েছে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর একটা সর্বজনগ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নেওয়া ইসির কর্তব্য। তা না করে বিতর্কিত বিষয় যুক্ত করার জন্যে আরপিও সংশোধন করে ইসি পরিস্থিতি আরও জটিল করছে। বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পাটির্র সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বাসদ (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা শুভ্রাংশু চক্রবর্ত্তী, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সম্পাদক জোনায়েদ সাকি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু এবং সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন।