ইন্টারনেটে নজরদারি: ৭ প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত

প্রকাশ:| সোমবার, ২২ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৭:২৫ অপরাহ্ণ

ইন্টারনেটে নিরাপত্তার জন্য নজরদারি (ফিল্টারিং) প্রযুক্তি বসাতে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে প্রস্তাব দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

বিটিআরসির এক পরিচালকের চিঠির বরাত দিয়ে এখবর প্রকাশ করেছে সরকারি বার্তা সংস্থা বাসস। ১৮ জুলাই বিটিআরসি পরিচালক (স্পেকট্রাম ম্যানেজমেন্ট) লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ প্রস্তাবের কথা বলা হয়েছে।

ওই চিঠিতে যোগ্য প্রতিষ্ঠানগুলোর নামও উল্লেখ করা হয়। ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়েতে (আইআইজি) বিশেষ প্রযুক্তি বসানোর পর ইন্টারনেটের নজরদারি বা নিয়ন্ত্রণের মূল ক্ষমতা থাকবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির হাতে।

সাত প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ছয়টি দেশি এবং একটি বিদেশি। দেশের বাইরের পছন্দের এই সেমটিয়ান ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড কোম্পানিটি হচ্ছে হংকংভিত্তিক প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশের মধ্য থেকে যোগ্য বিবেচিত ছয় কোম্পানির মধ্যে রয়েছে বেইজ টেকনোলজিস, পার্কি গ্লোবাল লিমিটেড, ইজি কমিউনিকেশন লিমিটেড, প্যানাসিয়া সিস্টেম লিমিটেড, ইনফ্রা বিল্ডার্স ও আইটি কনসালটেন্ট লিমিটেড। এ প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে ক্রয় প্রক্রিয়ার পরবর্তী ধাপ হিসেবে আরএফপি (বিস্তারিত প্রস্তাব আহ্বান) পাঠাবে বিটিআরসি।

গত ৮ এপ্রিল বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) আন্তজার্তিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে ‘ইন্টারনেট সেফটি সলিউশন’ চেয়ে ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেয়। আগ্রহপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল ২০ মে।

নয়টি প্রতিষ্ঠানের সাড়া মিললেও সাতটিকে বাছাই করা হয়েছে।

এ পদ্ধতির সাথে জড়িত বিটিআরসির একজন কর্মকর্তা জানান, স্বল্প সময়ের মধ্যে ইন্টারনেটে নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব হবে।