ইউএসটিসি কর্তৃপক্ষকে ৪৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:৩১ অপরাহ্ণ

নগরীর খুলশী থানার ফয়েস লেক এলাকায় অবস্থিত বেসরকারি হাসপাতাল ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চিটাগাং (ইউএসটিসি) কর্তৃপক্ষকে পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করার দায়ে ৪৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার বিকেলে পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত শুনানিতে দীর্ঘ দিন ধরে পরিবেশগত ছাড়পত্র বিহীন অনুমোদিত হাসপাতাল স্থাপন ও হাসপাতালের বিপুল পরিমাণ তরল ও জীবানু এবং সংক্রামক বর্জ্য দ্বারা ক্রমাগত আশপাশের পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতি সাধনের দায়ে এ অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

শুনানি পরিচালনা করেন পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) জাফর আলম।

পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, এনফোর্সমেন্ট টিম ইতোপূর্বে ইউএসটিসির তরল বর্জ্য দ্বারা পাশ্বর্বর্তী চট্টগ্রাম টেলিভিশন সেন্টারের লেকের পানি দূষিত হচ্ছে তা প্রমাণ পায়। এনফোর্সমেন্ট টিম উক্ত এলাকায় অভিযানকালে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ও শুনানি শেষে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ এর ৭ ধারা মোতাবেক পরিচালক, পরিবেশ অধিদপ্তর উক্ত ক্ষতিপূরণ ধার্য করে।

পরিচালক জাফর আলম জানান, ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হাসপাতালটি আজ পর্যন্ত পরিবেশ ছাড়পত্র গ্রহণ করেনি এবং কোনো প্রকারের চিকিৎসা বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ছাড়া চট্টগ্রাম টেলিভিশন সেন্টারের লেক ও আশপাশের পরিবেশ ও প্রতিবেশকে দূষিত করছে। ইতোপূর্বে অনুষ্ঠিত গত ৪ জুনের শুনানিতে ২ থেকে ৩ মাসের সময় আবেদন করলেও কোনো প্রকারের পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি বা ছাড়পত্রের আবেদনও করেননি। কিন্তু হাসপাতালটির ভবনেরও কোনো প্রকারের ছাড়পত্র নেই।

আগামী ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে উক্ত ক্ষতিপূরণ জমা দেয়া না হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করার পাশাপাশি দ্রুত ছাড়পত্র গ্রহণ ও চিকিৎসা বর্জ্য ব্যবস্থা উন্নয়ন করতেও নির্দেশ দেন জাফর আলম।


আরোও সংবাদ