ইংলাকের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ আদালতের

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৯ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৫:৪৫ অপরাহ্ণ

চালের ভর্তুকি প্রকল্পে নয়-ছয়ের অভিযোগে থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রার বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করেছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। এতে দোষী সাব্যস্ত হলে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ড হতে পারে ইংলাকের।

বৃহস্পতিবার থাইল্যান্ডের সুপ্রিমকোর্টে ইংলাকের মামলাটি গ্রহণের জন্য শুনানি হয়। আদালত মামলাটি বিচারের জন্য গ্রহণ করে ১৯ মে পরবর্তী শুনানির তারিখ ঘোষণা করেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে রাজনীতি থেকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল থাইল্যান্ডের সেনা সমর্থিত সরকার। ইংলাকের বিরুদ্ধে চালের ভর্তুকিতে কয়েকশ কোটি ডলার অপব্যয়য়ের অভিযোগে আনা হয়েছিল। এতে দাবি করা হয়, ক্ষমতায় থাকাকালে ইংলাক কৃষকদের কাছ থেকে বাজার মূল্যের চাইতে বেশি দামে চাল কিনেছেন। এ অভিযোগে গত ফেব্রুয়ারিতে তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করেছিল থাই সরকার। পরে ইংলাকের আইনজীবীরা সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে করা এ মামলাটি বিচারের জন্য আদালত এখতিয়ার রাখেন কিনা তা জানতে চেয়ে রিট করেন।

রিটের শুনানিতে বৃহস্পতিবার আদালত জানান, এ মামলার বিচারের এখতিয়ার সুপ্রিমকোর্টের রয়েছে।

আদালতের পক্ষে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ এ মামলার বিচারের এখতিয়ার সুপ্রিম কোর্টের রয়েছে তাই আমরা মামলাটি গ্রহণ করেছি এবং মামলার প্রথম শুনানি ১৯ মে অনুষ্ঠিত হবে।’

রিটের শুনানি চলাকালে আদালতে ইংলাক উপস্থিত ছিলেন না। তবে তিনি ফেসবুকে এক পোস্টে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তিনি বলে, ‘প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে আমি সৎভাবে কাজ করেছি এবং প্রতিটি ক্ষেত্রে সংবিধান ও আইন অনুযায়ী সঠিকভাবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করেছি।’


আরোও সংবাদ