আসলাম চৌধুরীকে অবিলম্বে মুক্তি না দিলে ভয়াবহ পরিণাম হবে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ১১:০৯ অপরাহ্ণ

%e0%a6%ad%e0%a7%9f%e0%a6%be%e0%a6%ac%e0%a6%b9বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও সাবেক রাষ্ট্রদূত গোলাম আকবর খোন্দকার বলেছেন, ‘বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে অবিলম্বে মুক্তি না দিলে পরিণাম ভয়াবহ হবে। ষড়যন্ত্রমূলক ও ভিত্তিহীন মামলায় আসলাম চৌধুরীকে গ্রেফতার করা হয়েছে উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা মনে করছেন, আসলাম চৌধুরীদের জেলে রেখে ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করা যাবে। কিন্তু বর্তমান সরকার চোরাবালির ওপর দাঁড়িয়ে আছে। যে কোন মুহুর্তে তছনছ হয়ে যেতে পারে। পায়ের নীচে মাটি নেই বলে তারা আষ্ফালন করে।

তিনি বৃহস্পতিবার বিকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর কাজির দেউড়ি নাসিমন ভবন দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গনে উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

.চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি চাকসু ভিপি মো.নাজিম উদ্দিন।

সমাবেশে সাবেক রাষ্ট্রদূত গোলাম আকবর আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন বিপন্ন, গণতন্ত্র নির্বাসিত, মানুষের স্বাধীনতা নেই। ভোটের অধিকার হরণ করা হয়েছে। গণতন্ত্র ও রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানগুলোকে সুপরিকল্পিতভাবে ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। সংগঠন কবার স্বাধীনতা নিয়ে নেয়া হয়েছে। দেশ এখন গণতন্ত্রের উল্টো দিকে অবস্থান করছে। তবে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। এই সরকারের পতন অবশ্যম্ভাবী। কারণ প্রতি রজনীর পর নতুন সূর্যোদয় হয়। ঠিক সেইভাবে এ সরকারের পতনের মাধ্যমে বাংলাদেশে নতুন গণতন্ত্রের সূর্য উদয় হবে। আর সেই সূর্যের আলো ছড়াবে দেশনায়ক তারেক রহমান।

উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ বক্তা ছিলেন নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য উদয় কুসুম বড়–য়া অতিথি ছিলেন উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি এম এ হালিম, অধ্যাপক ইউনুস চৌধুরী, আলহাজ্ব সালাউদ্দিন,ইসহাক কাদের চৌধুরী। সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, মুক্তিযোদ্ধা সেকান্দর চৌধুরী, জসীম উদ্দিন সিকদার, এড আবু তাহের, আজম খান, আবদুল আওয়াল চৌধুরী, হাজী এম এ কাসেম,জসীম উদ্দিন চৌধুরী, সেলিম চেয়ারম্যান,ডা.খুরশিদ জামিল, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন,আবু আহমেদ হাসনাত, উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আমিন,শাহেদ বকস, নাছির উদ্দিন, ইউসুফ নিজামী, কুতুব উদ্দিন খান, কাজী সালাউদ্দিন, সোলায়মান মনজু,হাসান মোহাম্মদ জসীম, মোবারক হোসেন কাঞ্চন, তফাজ্জল আহমদ, মাহবুবু ছাফা, অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, নবাব মিয়া চেয়ারম্যান, জাকির হোসেন, মহিলা কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি, জেসমিন আক্তার, দিদারুল আলম প্রমুখ।