আশরাফকে ফোনে ‘পাচ্ছেন না’ ফখরুল

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ০৬:০১ অপরাহ্ণ

বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
আশরাফ-ফখরুল

শুক্রবার দুপুরে সমকালকে মির্জা ফখরুল বলেন, “গতকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে আমি সৈয়দ আশরাফের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কিন্তু তাকে পাইনি, তার ফোন বন্ধ রয়েছে।”

আসলে সরকার মুখে সংলাপের কথা বললেও তারা ‘আন্তরিক’ নন দাবি করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।

এর আগে বিএনপির চেয়ারপারসনের দেয়া নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাব নিয়ে সংলাপের উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে গত ২২ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে চিঠি দেন মির্জা ফখরুল। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকতউল্লা বুলুর নেতৃত্বে তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল গুলশান কার্যালয় থেকে চিঠি নিয়ে সৈয়দ আশরাফের বেইলি রোডের বাসায় যান। চিঠির পাওয়ার পর তাৎক্ষণিক ফোন করে মির্জা ফখরুলকে তা নিশ্চিত করেন সৈয়দ আশরাফ।

ওই চিঠির প্রসঙ্গ তুলে মির্জা ফখরুল বলেন, “গত ২২ অক্টোবর আমি সৈয়দ আশরাফকে চিঠি দিয়েছিলাম। উনি বলেছিলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আপনাকে এ ব্যাপারে জানাবো।”

এরপর গত ১০ নভেম্বর সর্বশেষ সৈয়দ আশরাফের সঙ্গে তার ফোনে কথা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “উনি বলেছিলেন, রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সংলাপের জন্য আমি প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি নিব। আপনি আপনার নেত্রীর সঙ্গে কথা বলে অনুমতি নেন। আমি বলেছিলাম, আমার অনুমতি নেয়া আছে, আলোচনার দিন ঠিক করেন। উনি বলেছিলেন, দুই পক্ষের শীর্ষ তিন বা চারজন নেতার মধ্যে প্রাথমিক পর্যায়ে এ সংলাপ হতে পারে।”

আশরাফকে ফোনে ‘পাচ্ছেন না’ ফখরুল
গত ২২ অক্টোবর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছিলেন, এমন সময় ফোন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফ। ছবি: সমকাল
এদিকে, বিএনপির সহ-সভাপতি শমসের মুবিন চৌধুরী শুক্রবার সমকালকে বলেন, “আমরা আলোচনার মাধ্যমে উদ্ভূত রাজনৈতিক সংকট সমাধান করতে চাই। সেজন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।”

শমসের মুবিন বলেন, “বর্তমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানে আমরা প্রাথমিক পর্যায়ে মহাসচিব পর্যায়ে বৈঠক করে শীর্ষ দুই নেত্রীর আলোচনার ব্যাকগ্রাউন্ড তৈরি করতে চাই।”

গত ২২ অক্টোবর সংলাপের জন্য সৈয়দ আশরাফকে চিঠি দেয়া হয়েছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এখনও সে চিঠির কোনো উত্তর দেননি সৈয়দ আশরাফ।”

রাজনৈতিক সংকট সমাধানে বিভিন্ন দূতাবাসে চিঠি দেয়া হয়েছে কি-না, এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “কোনো দূতাবাসে চিঠি দেয়া হয়নি।”

এদিকে, শনিবার বাংলাদেশ সফরে আসছেন দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিশাল।

তার সঙ্গে রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হবে কি-না, এ প্রশ্নের উত্তরে শমসের মুবিন বলেন, “মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের আলোচনা হবে। রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হতে পারে।”