আলোকিত মানুষ গড়তে সহযোগিতা করে বই

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮ সময় ০৯:২০ অপরাহ্ণ

ডিসি হিলে একুশের বইমেলার আলোচনা সভায় প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন শিক্ষার কোন বিকল্প নেই, বই আলোকিত মানুষ গড়তে সহযোগিতা করে, শিক্ষা মানুষের জীবন গভীরভাবে জড়িত, তাই আগামী দিনের প্রজন্মকে নিয়ে এখনই আমাদের ভাবতে হবে। গতকাল শনিবার বিকেলে নগরীর নজরুল স্কোয়ার ডিসি হিল প্রাঙ্গনে একুশ মেলা পরিষদ আয়োজিত ৯দিনব্যাপী একুশের বইমেলার ৫ম দিনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, একটি স্বাধীন দেশে মাতৃভাষা সমাজ প্রগতি ও উন্নয়নের প্রধান অবলম্বন। একে আঁকড়ে ধরতে হভে। আমাদের মধ্যে এখন ঐপনিবেশিক দাসত্বের মায়াজাল রয়েছে। একে ছিন্ন করতে হবে। ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী আরো বলেন, আমাদের বর্ণমালার মধ্যে বাঙালি সংস্কৃতি বীজ লুকায়িত রয়েছে। সমাজ বিজ্ঞানের ভাষায় এই বর্ণমালা মানবসম্পদ বিকাশের উপর অন্বেষণে নতুন প্রজন্মকে প্রাণীত করতে পারে। মুখ্য আলোচকের ভাষণে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের শিশু ও স্বাস্থ্য বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ বাসনা মুহুরী বলেন, একুশ আমাদের আত্মশক্তি অর্জনের প্রেরণা এবং একুশের বইমেলা বাঙালির শুদ্ধ মননের প্রতীক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর সমাজ বির্নিমানে একটি ভাল বই সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখতে পারে। বিশেষ অতিথির ভাষণে খ্যাতিমান সাংস্কৃতিক সংগঠক, প্রমা আবৃত্তি সংসদের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান বলেন বাংলাদেশ জেগে উঠেছে এবং দক্ষিপূর্ব এশিয়ায় উদীয়মান ব্যঘ্র হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। এই অর্জনকে অবশ্যই ধারণ করতে হবে। তাই বলি মুক্তিযুদ্ধের চেতনার স্বপক্ষের শক্তিকে বারবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে হবে এবং তা না হলে আমাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ ছিনতাই হয়ে যাবে। সভাপতির ভাষণে মেলা পরিষদের কো-চেয়ারম্যান ও নগর আওয়ামী লীগ নেতা মো: ইছা বলেন সৃজনশীল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের একটি বই সমাজকে পরিশুদ্ধ করতে পারে এবং অন্ধকার বিমোচনে আলোর উৎস রচনা করতে পারে। আমি স্বীকার করছি যথেষ্ট সীমাবদ্ধতার মধ্যেও এই বইমেলা আয়োজনে আমাদের আন্তরিকতার অভাব ছিলো না। এবারের বইমেলা থেকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা-বর্ণ-মাতৃভূমিকে ভালোবাসায় ধন্য করার জন্য ডাক দিয়ে যাই। একুশ মেলা পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত একুশের বইমেলার আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য রোটারিয়ান হাজী মো: ইলিয়াছ, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য আবদুল মান্নান ফেরদৌস, অটিজম বিষয়ক সংগঠক প্রকৌশলী ঝুলন কুমার দাশ,সরাইপাড়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নুরুল আমিন, সহ-সভাপতি ডা: নুরুল ইসলাম, উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ইকবাল চৌধুরী, আকবর শাহ থানা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবু সুফিয়ান। আলোচনা সভা অনুষ্ঠানের শুরুতেই নিষ্পাপ অটিজম এর বিশেষ শিশুদের পরিবেশনায় গীতিনাট্য অমর একুশে পরিচালনায় অধ্যক্ষ সোমা চক্রবর্ত্তী। দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন চারুতা নৃত্যকলা একাডেমী। পরিচলনায় নৃত্যশিল্পী ফজল আমিন শাওন। সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন মোহরা এস কে কিউ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ এর শিক্ষার্থীরা। পরিচালনায় অধ্যক্ষ হাসিনা মমতাজ। রাত ৮ টায় আলোচনা সভা শেষে হারুন কাওয়াল এর পরিবেশনায় একুশের সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। সমগ্র সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাংস্কৃতিক সংগঠক নজরুল ইসলাম মোস্তাফিজ।