আলীকদমে আ’লীগের সভাপতির উপর ছাত্রলীগ সভাপতির হামলা

প্রকাশ:| রবিবার, ২৭ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:২২ অপরাহ্ণ

বান্দরবানের আলীকদমে আ’লীগের সভাপতির উপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে। রবিবার দুপুর ২টার দিকে আলীকদম হাসপাতাল গেইট চৌমহনী এলাকায় এঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, ১৮দলীয় জোটের হরতাল চলাকালে দুপুর ২টার দিকে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আনোয়ার জিহাদ চৌধুরী নেতৃত্বে একটি হরতাল বিরোধী ছাত্রলীগের একটি মিছিল বের হয়। এসময় উপজেলা আ’লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিনের নেতৃত্বে কয়েক জন আ’লীগের নেতা মিছিল বাঁধা প্রদান করে। এসময় ছাত্রলীগ সভাপতির সাথে আ’লীগ সভাপতির বাকবিতন্ড হয়। এক পর্যায়ে ছাত্রলীগ সভাপতি আ’লীগ সভাপতির উপর হামলা চালায়। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোতাকাব্বির আহম্মদ ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনা স্থালে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এঘটনায় উপজেলা আ’লীগ সভাপতি লাঞ্ছিত হলেও আহত হয়নি। এব্যাপারে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন তার উপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনার কথা সাংবাদিকদের কাছে স্বীকার করে জানান, হরতাল চলাকালে শিবিরের একটি মিছিলের দিকে অপরিকল্পিত ভাবে ছাত্রলীগ মিছিল নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আমি ছাত্রলীগের মিছিলটি থামিয়ে দেই। এঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতিসহ কয়েকজন ক্ষিপ্ত হয়ে আমার উপর হামলা চালিয়ে আমাকে লাঞ্ছিত করে।
এব্যাপারে ছাত্রলীগ সভাপতি আনোয়ার জিহাদ চৌধুরী আ’লীগ সভাপতির উপর হামলার ঘটনা সাংবাদিকদের কাছে অস্বীকার করে বলেন, উপজেলা আ’লীগ জাতীয় ও স্থানীয় কর্মসূচীতে উপজেলা ছাত্রলীগকে আমন্ত্রণ করে না এবং ছাত্রলীগের কোন সহযোগিতাও নেয় না। এই সরকারে বিগত বছর গুলোতে স্থানীয় আ’লীগ তেমন কোন কর্মসূচী পালন করেনি। অন্যান্য জেলা ও উপজেলায় হরতাল বিরোধী মিছিল হলেও আলীকদমে আ’লীগ কখনো হরতাল বিরোধী কোন কর্মসূচীর আহবান করেনি। গতকাল দুপুরে উপজেলা ছাত্রলীগ হরতাল বিরোধী মিছিল বের করলে আ’লীগের সভাপতি আমাদের মিছিলে বাঁধা প্রদান করেন। এসময় কয়েকজন উত্তেজিত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর সাথে আ’লীগ সভাপতির বাকবিতন্ডা হয়। এছাড়াও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও এমপি প্রতিনিধির বিরুদ্ধে ভিজিএফ, ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, টিআর কাবিখা এবং এমপির দেয়া বরাদ্দ আত্মসাতের অভিযোগ তুলেন তিনি।