আর্থিক বিষয়ে নথী পাশ করার আগে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন!

প্রকাশ:| সোমবার, ৩ মার্চ , ২০১৪ সময় ০৯:১৬ অপরাহ্ণ

আর্থিক বিষয়ে কোন প্রকার নথী পাশ করার আগে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন নিতে হবে স্বাধীন কমিশন বিটিআরসিকে। এ সম্পর্কিত সাংঘর্ষিক আইন আগে থেকেই পাশ করা থাকলেও সম্প্রতি তা আমলে নিচ্ছে কমিশন। তবে এতে কাজের ক্ষেত্রে খানিকটা ধীর গতি আসতে পারে বলে মনে করছেন বিটিআরসির নীতি নির্ধারক পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে অপারেটরদের সব প্যাকেজ অনুমোদনের ক্ষমতা বিটিআরসির হাতেই ছিল। কিন্তু ২০১০ সালে টেলিযোগাযোগ আইন সংশোধনের সময় মন্ত্রণালয় এ ক্ষমতা নিয়ে নেয়। তখন মন্ত্রণালয়ের সচিব ছিলেন বিটিআরসির বর্তমান চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস। সে সময় গণমাধ্যমে কমিশনের ক্ষমতা খর্ব করা নিয়ে নানা প্রশ্ন তোলা হলেও সুনীল কান্তি সব সময় সরকারের হাতে এ ক্ষমতা থাকা প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেছিলেন। পরে ২০১২ সালে বিটিআরসির চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়োগ পান সুনীল কান্তি। তখন থেকেই কমিশনের হাতে সকল ক্ষমতা পরিচালনার চেষ্টা করেন।

ফলে বর্তমানে ৪টি বেসরকারি অপারেটর থ্রিজি সেবা দিতে শুরু করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনও অপারেটরের প্যাকেজ মন্ত্রণালয় অনুমোদন করেনি। ফলে রাষ্ট্রায়ত্ত অপারেটর টেলিটক ছাড়া কারও প্যাকেজ সরকারি অনুমোদন পায়নি। কিন্তু এখন থেকে আর্থিক বিষয়ে কোন প্রকার অনুমোদন দেয়ার প্রয়োজন হলে মন্ত্রণালয়ের আদেশের অপেক্ষায় থাকবে বিটিআরসি।