আরেফিন টেক্সটাইলের ২০ বছর পূর্তি উৎসব

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| সোমবার, ১ জানুয়ারি , ২০১৮ সময় ১০:৪৮ অপরাহ্ণ

পটিয়া প্রতিনিধি॥
ঘামে শ্রমে চলেছি, চলছে স্বদেশ। এ স্লোগান নিয়ে সোমবার পটিয়া বিসিক শিল্পনগরীতে অবস্থিত আরেফিন টেক্সটাইল এর মালিক শ্রমিকদের মিলন মেলা ও ২০ বছর পূর্তি উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে পটিয়া জুলুয়ার দিঘীর পাড়ে অবস্থিত ফোর স্টার ক্লাবে আয়োজিত কর্মসূচীর মধ্যে ছিল আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কবিগান, নৃত্য, র‌্যাফেল ড্র, পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান ও প্রীতিভোজ। এ উৎসবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে ব্যান্ড সংগীত, আঞ্চলিক গান, দেশাত্ববোধক গান, মাইজভান্ডারী, বাউল ও কবি গানের মধ্য দিয়ে শ্রমিকদের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। এরই মাঝে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভা প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক শফিকুল আলম চৌধুরী হেলালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব নজরুল ইসলাম, অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন শাহীন, পরিচালক ইমাম হোসাইন চিশ্তী, পরিচালক ইনাম হোসাইন চিশতী, পরিচালক হোসাইন মোহাম্মদ আরেফিন, কচুয়াই ইউপি চেয়ারম্যান এস এম ইনজামুল হক জসীম, সাবেক চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান বাবু, বিশিষ্ট কবিয়াল আবু ইউসুফ, সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম, সাংবাদিক ফারুক হোসেন সিদ্দিকী, সাংবাদিক ইকবাল হোসেন জিসান, সাংবাদিক ওয়াসিম আহমেদ। ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম তার এ প্রতিষ্ঠান সাফল্যের পেছনে যারা অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে আল আরফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান আবদুস সামাদ লাবু, আল আরফাহ্ ইসলামী ব্যাংক লিঃ চট্টগ্রাম বিভাগের জোনাল হেড ও আগ্রাবাদ শাখার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোঃ আজম ও গার্মেন্টস পণ্য ক্রেতা প্রতিষ্ঠান গ্যারান ম্যানুফেকচার কর্পোরেশন এবং ইউএসএ চট্টগ্রামের অফিসের কর্মকর্তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ১৯৯৮ সালে গার্মেন্টস এর কার্যক্রম শুরু হয়। বহু ত্যাগ ও শ্রমের বিনিময়ে এ গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠান এখন সাফল্যের শেখড়ে পৌছেচে। অনেক শ্রমিক কর্মচারী-কর্মকর্তা জন্ম দিয়েছে এ প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানে ১৫শ কর্মচারী-কর্মকর্তা শ্রমিকের কর্মসংস্থান হয়েছে। এ ২০ বছরে কোম্পানী প্রায় ৭ কোটি ডলার রপ্তানী খাতে আয় করেছে। তিনি ২০১৮ সালে ১ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের গার্মেন্টস পণ্য বিদেশে রপ্তানীর জন্য লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করেছেন। এতে তিনি শ্রমিক- কর্মচারী সহ সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন। আরেফিন টেক্সটাইলের কমার্শিয়াল ম্যানেজার প্রদীপ কুমার দেব তার প্রতিক্রিয়ায় জানায়, এ প্রতিষ্ঠানের মালিক শ্রমিক-কর্মচারীদের সাথে সুসম্পর্ক রয়েছে। যার ফলে কাজ করে ভালো লাগে। সুইং সুপাভাইজার মাসুদ পারভেজ জানান, মালিকদের ভালো আচরণের কারণে শ্রমিকেরা কাজ করতে উৎসাহ পায়। কোয়ালিটি কর্মচারী ইমন জানান, এ টেক্সটাইলের মালিকদের মধ্যে আচরন ভালো ছাড়াও আনন্দ উৎসাহ রয়েছে যার কারণে কাজ করে আনন্দ পায়।


আরোও সংবাদ