আমি রাঙ্গুনিয়ার উন্নয়ন ও ইসলামের খেদমতে নিজেকে নিয়োগ করেছি-বনমন্ত্রী

প্রকাশ:| শনিবার, ২৬ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৯:৪৪ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগ সরকারই সব সময় ইসলামের খেদমতে কাজ করে বলে দাবি করেছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারই সব সময় ইসলামের খেদমতে কাজ করে। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে যত মসজিদ মাদ্রাসাসহ সব ধরনের ইসলামী প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন হয়েছে অন্য কোন সরকারের সময় ইসলামের উন্নয়নে এত কাজ হয়নি।’

শনিবার বিকেলে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার চন্দ্রঘোনায় মাদ্রাসা-এ তৈয়বীয়া অদুদিয়া সুন্নিয়া’য় একটি ইসলামী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, ‘গত ৫ বছরে রাঙ্গুনিয়ায় প্রতিটি ইউনিয়ন নতুন নতুন আধুনিক মসজিদ নির্মিত হয়েছে। অথচ গত ৩০ আ.লীগ সরকারবছর ধরে ইসলামের কথা বলে যারা ক্ষমতায় ছিলো তারা রাঙ্গুনিয়ায় একটি মসজিদ মাদ্রাসাও নির্মাণ করতে পারেনি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি রাঙ্গুনিয়ার উন্নয়ন ও ইসলামের খেদমতে নিজেকে নিয়োগ করেছি। আমি সব সময় আলেম, ওলামা, মসজিদ মাদ্রাসার উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিয়েছি। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার এমন কোন মসজিদ, মাদ্রাসা বা ইসলামী প্রতিষ্ঠান নেই যেখানে উন্নয়ন সহায়তা প্রদান করা হয়নি। তাই ইসলামের খেদমতে, ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্টানের উন্নয়নের স্বার্থে আবারও আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আবদুল মোনাফ সিকদার, আবুল কাশেম চিশতি, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু তৈয়ব, আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, আবুল কালাম আজাদ, মাহবুব আলী, আরজু শিকদার, পরিবেশ ও বনমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী এনায়েতুর রহিম, ওয়াহিদুল আলম, আসাদুজ্জামান আরশাদ, সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

এর আগে পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ রাঙ্গুনিয়া চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নে ৪০ কোটি টাকার অবকাঠামো নির্মাণ ও উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন।

এসব উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে আধুর পাড়া সড়ক, বুইজ্যার দোকান সড়ক, ছুপিগোট্টা সড়ক, সৈয়দুল হক চেয়ারম্যান বাড়ি সড়ক, মহাজন গোট্টা সড়ক, বনগ্রাম সড়ক, বনগ্রাম আদিবাসী পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম, চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন।