আমাদের প্রধানমন্ত্রী একজন আলোকিত নারী-অতি. সচিব রকিব

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারি , ২০১৮ সময় ০৮:০১ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব(এনডিসি)মোঃ রকিব হোসেন বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে কেন্দ্র করেই আজকের উন্নয়ন মেলা। যারা স্বাধীনতা যুদ্ধের পরে জন্মগ্রহণ করেছেন কিংবা যুদ্ধের সময় যারা ছোট ছিলেন তাদের উন্নয়ন সর্ম্পকে জানা দরকার। কিভাবে দেশ উন্নয়নশীল হলো। পাকিস্তান শাসকদের নির্যাতনের কারণে উন্নয়নের মুখ থুবড়ে পড়েছিল। একটি কথা না বললেই নয়,শুক্রবার একটি পত্রিকায় পড়লাম পাকিস্তানের নওয়াজ শরীফ তিনি স্বীকার করেছেন পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশে বৈষম্য ছিল সেই বৈষম্যের কারণেই বাংলাদেশের উৎপত্তি হয়েছে। বৈষম্য করে নীপিড়ন করে যে উন্নতি করতে পারেনা আমাদের বর্তমান অবস্থানই তার প্রমাণ। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সারা দেশের ন্যায় বন্দর উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত ৩দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধণী অনুষ্ঠানে প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। রকিব হোসেন আরো বলেন, স্বাধীনতা পেয়ে আমরা তাদের চাইতে অনেক ভাল আছি। দরুন গড় আয়ূতে আমরা ৭১.০৬ পাকিস্তানের ৬৭,কর্মজীবি আমরা ৫.৯ ওরা ৫,৭৪,বেকতারত্ব বাংলাদেশে ৪.২ পাকিস্তানের ১.৯,জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে আমরা ১.৭ এ আছি ১.৮৬,শিশু মৃত্যু আমাদের ২৮,ওদের ৬২,মাথা পিছু আই ১৬১০ এখানে তারা একটু বেশি ১৬২৯। এতেই বুঝা যায় আমরা কতটা এগিয়েছি। যে বাংলাদেশ শূণ্য থেকে শুরু করেছিল সে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু প্রত্যাবর্তণের মাধ্যমে আজকে উন্নয়নের জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আজকে যদি বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যাবর্তন না করতেন তাহলে হয়তো অন্য বাংলাদেশের উৎপত্তি হতো। উন্নয়ন কন্টিন্যু প্রসেস। সুতরাং উন্নয়নের এই সময়টাকে কাজে লাগাতে হবে। সকলের সহযোগিতায় এদেশকে আরো সমৃদ্ধশালী করতে হবে। সরকার এবং প্রধাণমন্ত্রী আমাদেরকে সেই চিন্তাই দিচ্ছেন যাতে আমরা উন্নয়নটাকে ধরে রাখি। আমাদের মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী একজন আলোকিত নারী। উন্নত দেশগুলোতেমধ্যে বর্তমানে শক্তিশালী নেতৃত্বের মধ্যে আমাদের নেত্রী ত্রিশে অবস্থান করছেন। ২০৩০ এর মধ্যে আমরা আমাদের অবস্থান একটা পর্যায়ে নিয়ে আসবো ইনশাল্লাহ।
বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিন্টু বেপারীর সভাপতিত্বে উদ্বোধণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বন্দর উপজেলা সহকারি কমিশণার(ভূমি) শাহিনা শবনম,বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল কালাম,বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশীদ,নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আলহাজ্ব আবুল জাহের ও বন্দর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট মাহমুদা আক্তার। বন্দর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আ ক ম নুরুল আমিনের সঞ্চালনায় এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বন্দর জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার আশরাফ হোসেন খান,প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা ইব্রাহিম খলিল,সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোঃ মোক্তার হোসেন,কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মোস্তফা এমরান হোসেন,ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহমেদ,মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম এ সালাম,কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব দেলোয়ার হোসেন প্রধাণ,বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এহসানউদ্দিন আহমেদ,সহ উপজেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তাবৃন্দ। মেলায় সরকারি বেসরকারি ৩৫ টি দপ্তর অংশগ্রহণ করছে। উদ্বোধণ শেষে ২য় পর্বে নবীগঞ্জ গার্লস স্কুল ও হাজী ইব্রাহিম আলমচান মডেল স্কুল এন্ড কলেজের মধ্যে ‘‘ইভটিজিংয়ের জন্য কেবল ছেলেরা নয় মেয়েরাও দায়ী’’ শীর্ষক বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় হাজী ইব্রাহিম আলমচান মডেল স্কুল জয়লাভ করে।


আরোও সংবাদ